বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী পালন আবাহনী

ঢাকা, শুক্রবার, ১০ এপ্রিল ২০২০ | ২৭ চৈত্র ১৪২৬

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী পালন আবাহনী

ক্রীড়া প্রতিবেদক ১১:৪২ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ১৮, ২০২০

print
বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী পালন আবাহনী

করোনা ভাইরাসে খেলা বন্ধ হলেও অনুশীলন বন্ধ থাকেনি ক্লাবগুলো। গতবাল বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মদিনেও দেখা গেছে আবাহনীর ক্রিকেটারদের অনুশীলন করতে। শুধু তাই নয়, শুরুতেই তারা এদিন বিশাল আকৃতির কেক কেটে পালন করেছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মদিন।

স্বাধীনতার পরেই আবাহনী ক্লাবটি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন বঙ্গবন্ধু তনয় শেখ কামাল। ক্রিকেট ঐতিহ্যে এই ক্লাবটির ইতিহাস সমৃদ্ধ। শেখ কামাল নিজে খেলেছেন ক্রিকেট। 

ঢাকার ক্লাব ক্রিকেটের অভিষেক আসরে আবাহনীর লিগ শিরোপা জয়ে রেখেছেন অবদান। জন্ম থেকে এ পর্যন্ত আবাহনী ২০ বার জিতেছে ক্রিকেট লিগের শিরোপা।
বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনে হ্যাটট্রিক শিরোপা জয়ের লক্ষ্য নিয়ে দল গঠন করেছে এবারও।

মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামের একাডেমি ভবনে কেক কেটে কোচ খালেদ মাহমুদ সুজন, অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম পালন করেছে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী। কেক কেটে জাতির জনকের জন্ম শতবাার্ষিকী উদযাপনে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন করতে পেরেছে আবাহনী।

এমনটাই জানিয়েছেন আবাহনী কোচ খালেদ মাহমুদ সুজন- ‘এটাকে শেখ কামালের ক্লাব বলা হয়। উনিই এটার প্রতিষ্ঠাতা। এর সঙ্গে উনার বাবা, বঙ্গবন্ধুর নাম জড়িত। শুধু আবাহনী না, পুরো বাংলাদেশের সঙ্গেই জাতির পিতার নাম জড়িত। স্বাধীনতার ক্ষেত্রে ওনার অবদান কি অপরিসীম এটা তো আমরা সবাই জানি। আজ ওনার শততম জন্মদিন। আমাদের ক্লাবের পক্ষ থেকে ওনাকে ট্রিবিউট। এটুকুই আমরা করতে চেয়েছিলাম।’

বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ সুজন বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর কথায় আমরা বিনা অস্ত্রে যুদ্ধ করি, দেশ স্বাধীন করি, এর থেকে বড় পাওয়া কিছু হয় না আসলে। এটা সবচাইতে বড় অর্জন। কাণ্ডারি উনি, রূপকার উনি। উনিই সেই স্বাদ দিয়েছেন। উনিই শ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা। ওনার তুলনা, অবদান আমরা কারো সঙ্গে করতে পারি না। সুতরাং, উনার সেই সক্ষমতা ছিল। উনি ছিলেন বলেই হয়তো আমরা স্বাধীন হয়েছি। আমি কোনো রাজনীতি বুঝি না, আমি বুঝি রেসকোর্সের ময়দান থেকে ওনার ডাকটা। জাতির উদ্দেশে যে ভাষণটা খুব অনুপ্রেরণামূলক।’