বাংলাদেশের ৫ ক্রিকেটার এশিয়া একাদশে

ঢাকা, বুধবার, ৮ এপ্রিল ২০২০ | ২৫ চৈত্র ১৪২৬

বাংলাদেশের ৫ ক্রিকেটার এশিয়া একাদশে

ক্রীড়া প্রতিবেদক ১:০৯ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২০

print
বাংলাদেশের ৫ ক্রিকেটার এশিয়া একাদশে

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে দুটি টি-২০ আন্তর্জাতিক ম্যাচ আয়োজনের পরিকল্পনা অনেক আগেই করে রেখেছে বিসিবি। আইসিসি ও ওই দুটি ম্যাচের স্বীকৃতি দিয়েছে। সিরিজটি হবে এশিয়া একাদশ বনাম বিশ্বএকাদশ। এখন শুধু মাঠে গড়ানোর অপেক্ষা। এ নিয়ে শুরু হয়ে গেছে বিশ্বের ক্রিকেটারদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা। ম্যাচ দুটি শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৮ ও ২২ মার্চ। এই ২টি ম্যাচকে সামনে রেখে এশিয়ান অল স্টার ঘোষণা হবে শিগগিরই।

আয়োজক বিসিবি ইতোমধ্যে এশিয়ান অল স্টার গঠনে সংশ্লিষ্ট দেশের ক্রিকেট বোর্ড সমূহের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে। বাংলাদেশের ৫ ক্রিকেটার এশিয়ান অল স্টার স্কোয়াডে থাকছেন, তা নিশ্চিত করেছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন এমপি-‘তামিম, মুশফিক তো কনফার্ম, এদের ব্যাপারে কোনো সন্দেহ নেই। আরও দুজন আছে একজন রিয়াদ আরেকজন মোস্তাফিজ। আরেকজন নিয়ে ওদের সঙ্গে কথা হচ্ছে সে হলো লিটন দাস।’

পাকিস্তানের ঘরোয়া ক্রিকেট পাকিস্তান সুপার লিগ (পিএসএল) এখন মাঠে। সে কারণেই এশিয়ান অল স্টার স্কোয়াডে পাকিস্তানের কেউ থাকছেন না বলে জানিয়েছেন বিসিবি সভাপতি। ভারতের চার ক্রিকেটারের নাম আপাতত চূড়ান্ত বলেও জানিয়েছেন পাপন-‘এশিয়া একাদশে ভারত থেকে চারটা নাম আমরা পেয়ে গেছি। যেটা এখন পর্যন্ত আমরা জানি। চুক্তি সম্পন্ন হয়নি। শুনেছি রিশাব পান্ত, কুলদীপ যাদব, শিখর ধাওয়ান ও মোহাম্মদ সামি।’

তবে ভারত গণমাধ্যমে কিছুদিন আগে এশিয়ান অল স্টার দলে সুপার স্টার বিরাট কোহলির নাম উঠে এলেও তার ব্যাপারে এখনো নিশ্চিত নন বিসিবি সভাপতি-‘একটা ম্যাচের জন্য কে এল রাহুল, একটা ম্যাচ কোহলি, এ ধরনের কথাবার্তাই বলেছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত ওটা ফাইনাল হয়নি। একটা ম্যাচ রাহুল খেলবে এটা বলেছে।’

এশিয়ান অল স্টার স্কোয়াডে আফগানিস্তানের টি-২০ সেনসেশন লেগ স্পিনার রশিদ খান এবং অফ স্পিনার মুজিব জাদরান থাকবেন। শ্রীলঙ্কার লাসিথ মালিঙ্গা এবং কুশল পেরেরা, নেপালের স্পিনার লামিচানকেও দেখা যাবে এশিয়া স্কোয়াডে। তা জানিয়েছেন পাপন-‘আমরা চিন্তা করছি আফগানিস্তান থেকে রশিদ খান এবং মুজিব তাদের মোটামুটি ফাইনাল করেছে। কিন্তু চুক্তি সই করিনি, করব। গতকাল রাতে এটা শেষ করেছি। নেপাল থেকে লামিচানকে বলা হচ্ছে। শ্রীলঙ্কা থেকে মালিঙ্কা ও পেরেরার সঙ্গে কথাবার্তা ফাইনাল হয়েছে।’

বাংলাদেশের পাঁচ ক্রিকেটারের সবাই ম্যাচে খেলতে নাও পারেন, এমন আভাসই দিয়েছেন পাপন-‘আমাদের ধারণা দুটি ম্যাচ আছে, তাই একটা ম্যাচে যদি বেশি খেলোয়াড় খেলাতে নাও পারি আরেক ম্যাচে ঘুরিয়ে ফিরিয়ে মিক্সম্যাচ করে খেলাতে পারব।’

ওই সময়ে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডের দ্বি-পক্ষীয় সফর থাকায় অবশিষ্ট বিশ্ব একাদশে তাদের পাওয়ার আশা ছেড়ে দিতে হচ্ছে। অবশিষ্ট বিশ্ব একাদশে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটারদের প্রাধান্য থাকবে। ইংল্যান্ড থেকে প্রতিনিধিত্ব করবেন একজন। তবে টি-২০ সেনসেশন ক্রিস গেইল এবং ডু প্লেসিসকে দেখা যাবে অবশিষ্ট বিশ্ব একাদশে। তা জানিয়েছেন পাপন-সাউথ আফ্রিকা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ থেকে চার-পাঁচজন করে আসছে। অস্ট্রেলিয়া নিউজিল্যান্ডের খেলা চলছে জানি না কয়জন আসবে। বেয়ারিস্টো থাকবে। ক্রিস গেইল থাকার কথা। ডু প্লেসিস থাকবে।