চ্যালেঞ্জে প্রস্তুত চট্টগ্রাম

ঢাকা, শনিবার, ২৫ জুন ২০২২ | ১১ আষাঢ় ১৪২৯

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

চ্যালেঞ্জে প্রস্তুত চট্টগ্রাম

ক্রীড়া ডেস্ক
🕐 ১১:৫৩ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯

চ্যালেঞ্জে প্রস্তুত চট্টগ্রাম

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে বিশেষ ‘বিপিএল’ আয়োজন করছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। বুধবার শুরু হচ্ছে রোমাঞ্চকর এই আসর। দরজায় কড়ানাড়া ব্যাট-বলের যুদ্ধে অংশ নেওয়া দলগুলোকে নিয়ে ধারাবাহিক প্রতিবেদনে আজ থাকছে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। তাদের লক্ষ্য, সাফল্য, ব্যর্থতা, ইতিহাস তথা সার্বিক বিষয়াদি নিয়ে দল পর্যালোচনা করা হল।

বিশেষ টুর্নামেন্ট বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে বিদেশি কোচদের আধিপত্য। অংশ নেওয়া ৭ দলের ৬টিতেই বিদেশি কোচ। তাদের মধ্যে একজন অ্যান্ড্রু নিক্সন। ইংলিশ কোচ অন্য ৫ জনের চেয়ে একটু আলাদা। বঙ্গবন্ধু বিপিএলে অংশ নিতে বিদেশি কোচদের সধ্যে সবার আগে ঢাকায় এসেছেন চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের প্রধান কোচ।

চট্টগ্রাম আরো একটা জায়গা থেকে আলাদা। অন্যদের মতো নীরবে পথচলা শুরু হয়নি তাদের। জমকালো এক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে নিজেদের আগমনী বার্তা দিয়েছে বন্দর নগরীর দলটি। আড্ডা ও খুনসুটির ঘরোয়া পরিবেশের ছোট্ট একটা অনুষ্ঠান করে জার্সি উন্মোচন করেছে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স।

বিপিএলে এখন অবধি যে কটা দল শিরোপা জিততে পারেনি তাদের একটি চট্টগ্রাম। শিরোপাবন্ধ্যত্ব ঘোচানোর লক্ষ্যে গেল শুক্রবার থেকে অনুশীলনে নেমে পড়েছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল। বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ককে পেয়ে ভীষণ খুশি চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স কোচ নিক্সন। স্বপ্ন পূরণের এই অভিযানে তার সঙ্গী স্থানীয় বোলিং কোচ কবির আলি। দলের ম্যানেজার ফাহিম মুনতাসির। দলের ডিরেক্টর হিসেবে থাকছেন বিসিবি থেকে নিয়োগ দেওয়া বোর্ড পরিচালক জালাল ইউনুস।

দলের এসব কর্তারাই নিলাম থেকে নিজেদের পছন্দের ক্রিকেটারকে বেছে নিয়েছেন। চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সে যেমন আছেন অভিজ্ঞ ক্রিকেটাররা তেমনি একঝাঁক তরুণ। দলের সবচেয়ে বড় আকর্ষণের নাম ক্রিস গেইল। ক্যারিবীয় কিংবদন্তির অংশগ্রহণ নিয়ে জল অনেক দূর গড়ালেও নাটকের পর্দা নেমেছে। গেইল খেলবেন বঙ্গবন্ধু বিপিএলে। তবে ইনজুরির কারণে এ বছর টি-টোয়েন্টির রাজাকে দলে পাচ্ছে না তারা। নতুন বছরের শুরুতে অর্থাৎ সিলেট পর্ব থেকে বিপিএল মাতাতে আসবেন গেইল।

চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের জন্য আরেকটা অস্বস্তির খবর হচ্ছে ইনজুরিতে ভুগছেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদও। কদিন ধরে অনুশীলন করলেও বিপিএলে প্রথম দুই ম্যাচে খেলতে পারছেন না তিনি। তবে অধিনায়কের ঘাটতি পুষিয়ে দেওয়ার অঙ্গীকার করেছেন নাসির-রুবেলরা। আজ উদ্বোধনী ম্যাচে সিলেট থান্ডারের বিরুদ্ধে মাহমুদউল্লাহ ছাড়া চট্টগ্রাম জিততে পারে কিনা সেটাই দেখার।

বিপিএলে চট্টগ্রামের দলটির সর্বোচ্চ সাফল্য দ্বিতীয় আসরে তথা ২০১২-১৩ মৌসুমের ফাইনালে উঠেছিল তারা। কিন্তু সেবার মাশরাফি বিন মর্তুজার ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সের কাছে ৪৩ রানে হেরে শিরোপা স্বপ্নভঙ্গ হয় চট্টগ্রাম কিংসের। পরবর্তীতে বন্দর নগরীর দলটার নাম পরিবর্তন করে রাখা হয় চিটাগং ভাইকিংস। নাম বদলালেও ভাগ্যের বদল করতে পারেনি তারা। এবারের আসরে তারা খেলবে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স নামে।

এবারের আসরকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছে তারা। তা মোকাবেলায় জাতীয় দলের জার্সি চাপানো ৮ জন খেলোয়াড় আছেন এই দলে। ব্যাটিং বিভাগে স্থানীয়দের মধ্যে আছেন ইমরুল কায়েস, নাসির হোসেন, নুরুল হাসান সোহানের মতো তারকা ক্রিকেটাররা। ঘরোয়া ক্রিকেটে আলো ছড়ানো মুক্তার আলি, পিনাক ঘোষরা অপেক্ষা আছেন বিপিএলে ঝড় তোলার। বিদেশিদের মধ্যে ব্যাট হাতে ঝড় তুলতে প্রস্তুত গেইল, আভিষ্কা ফার্নান্দো, রায়ান বার্ল, রায়াদ এমরিতের মতো তারকারা।

চট্টগ্রামের বোলিং বিভাগটাও যথেষ্ঠ শক্তিশালী। কেসরিক উইলিয়ামস, ইমাদ ওয়াসিমদের মতো পেসারদের সঙ্গী হিসেবে পাচ্ছেন রুবেল হোসেন। স্পিন বিভাগে জুবায়ের হোসেন লিখন, এনামুল হক জুনিয়রকে। সবমিলিয়ে শিরোপা প্রত্যাশি একটা দলই তৈরি করেছে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। শেষ পর্যন্ত তারা বাজিমাত করতে পারবে কিনা উত্তরটা তোলা থাকল ভবিষ্যতের জন্য।

 
Electronic Paper