শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রাখার চ্যালেঞ্জ

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট ২০২০ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭

শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রাখার চ্যালেঞ্জ

প্রিন্স রাসেল ১২:২৬ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ০৭, ২০১৯

print
শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রাখার চ্যালেঞ্জ

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীতে বিশেষ ‘বিপিএল’-এর আয়োজন করেছে বিসিবি। বুধবার শুরু হচ্ছে ‘বঙ্গবন্ধু বিপিএল’। দরজায় কড়া নাড়া ব্যাট-বলের যুদ্ধে অংশ নেওয়া দলগুলোকে নিয়ে ধারাবাহিক প্রতিবেদনে আজ থাকছে কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স। তাদের লক্ষ্য, সাফল্য, ব্যর্থতা, ইতিহাস তথা সার্বিক বিষয়াদি দল পর্যালোচনা করছেন প্রিন্স রাসেল। প্রথমপর্বে তুলে ধরা হলো কুমিল্লা ওয়ারিয়ার্সকে

নতুন মোড়কে আসছে রোমাঞ্চকর ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) বিশেষ এই আয়োজনে থাকছে না কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি। প্রথমবারের মতো পুরো টুর্নামেন্ট ও অংশ নেওয়া দলগুলোর সার্বিক তত্ত্বাবধানে থাকছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। প্রতিযোগিতার পাশাপাশি অংশ নেওয়া দলগুলোর নামও পাল্টে ফেলা হয়েছে।

ফ্র্যাঞ্চাইজি না থাকায় পৃষ্ঠপোষকদের সহযোগিতা নিচ্ছে বোর্ড। পাঁচটি দলের স্পন্সর পাওয়া গেলেও কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স ও রংপুর রেঞ্জার্সের জন্য স্পন্সর পায়নি আয়োজকরা। ওই দুটি দলের খরচ বোর্ড বহন করবে। প্রতিটি দলের জন্যই নিয়োগ দেওয়া হয়েছে অন্তত একজন পরিচালক। কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সের দায়িত্ব পেয়েছেন নাঈমুর রহমান দুর্জয় ও মিনহাজুল আবেদীন নান্নু।

বিপিএলের সবচেয়ে সফল ঢাকার ফ্র্যাঞ্চাইজি। দুবার ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্স দুবার ও ঢাকা ডায়নামাইটস নামে একটি ট্রফি জিতেছে ফ্র্যাঞ্চাইজি, এরপরই কুমিল্লার ফ্রাঞ্চাইজি, তারা চ্যাম্পিয়ন হয়েছে দুবার। বিপিএলের বর্তমান শিরোপাধারীও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস। বিপিএলের সপ্তম আসরের জন্য বিসিবির মালিকানায় এর নাম কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স।

বিশেষ সংস্করণে দলটি অপেক্ষাকৃত দুর্বল কেন না, গত আসরে কুমিল্লা ফ্র্যাঞ্চাইজির হয়ে খেলেছেন তামিম ইকবাল, শোয়েব মালিকের মতো তারকারা। যাদের নেতৃত্ব দিয়েছেন বিপিএল দিয়ে নির্বাসন থেকে ফেরা অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ। এবারের আসরে দলের নেতৃত্বের জোয়াল কার কাঁধে পড়বে তা নিয়ে কাল রাত পর্যন্ত কিছু জানায়নি কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স। তরুণ ক্রিকেটারদের ওপর ভরসা রাখতে হচ্ছে তাদের। দলে আছেন সৌম্য সরকার, সাব্বির রহমানের মতো বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান। বিদেশি তারকাদের মধ্যে আছেন আফগান সেনসেশন মুজিব উর রহমান, ইংলিশ ব্যাটসম্যান ডেউইড মালান ও লঙ্কান অলরাউন্ডার কুশল পেরেরা। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে টেস্ট খেলতে যাওয়ার কথা রয়েছে শানাকা ও পেরেরার। তাই আসরের শুরুর দিকে এ লঙ্কানদ্বয়কে পাচ্ছে না ওয়ারিয়র্স।

তাদের দুশ্চিন্তা আছে স্থানীয় চার ক্রিকেটার সৌম্য, ইয়াসির, মাহিদুল, সুমনকে নিয়েও। টুর্নামেন্ট শুরুর প্রস্তুতিতে থাকছেন না এই চতুষ্টয়। এসএ গেমসে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দলের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করায় নেপালে আছেন তারা। ১১ ডিসেম্বর টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে রংপুর রেঞ্জার্সের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে মিশন শুরু করবে কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স। সেদিনই ফেরার কথা সৌম্যদের।

পেস বোলিংয়ে তাদের আস্থার নাম স্থানীয় দুই তারকা আল আমিন হোসেন ও আবু হায়দার রনি। স্পিন বিভাগে তাদের মূল শক্তি আফগান তরুণ মুজিব। বড় মঞ্চে জ¦লে উঠতে অপেক্ষায় আছেন অঙ্কন, সুমন, ফারদিনের মতো উঠতি প্রতিভারা। ব্যাটিং বিভাগে বড় ইনিংস খেলার সামর্থ্য আছে এই দলের বেশ কয়েকজনেরই। সৌম্য, ইয়াসির, সাব্বির, কুশল পেরেরা, মালান ও শানাকাদের যে কেউ ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দিতে সক্ষম। দলটির প্রধান কোচের ভূমিকায় থাকছেন গত বিশ^কাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে কোচিং করানো ওটিস গিবসন। বিপিএলের শিরোপা ধরে রাখার বাড়তি প্রত্যাশার চাপ নিয়েই স্বপ্নযাত্রা শুরু করবে দলটি।