ফেরার প্রতিশ্রুতি

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯ | ২৮ কার্তিক ১৪২৬

ফেরার প্রতিশ্রুতি

ক্রীড়া প্রতিবেদক ২:১৮ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ০৯, ২০১৯

print
ফেরার প্রতিশ্রুতি

ব্যাটিং, বোলিং এবং ফিল্ডিং। তিন বিভাগের দুর্দান্ত সমন্বয় করে দিল্লিতে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ভারতকে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। এরপরই আকাশছোঁয়ার স্বপ্ন সাকিব-তামিমবিহীন টাইগারদের। সিরিজ জয়ের স্বপ্নে বিভোর হয়ে উঠেছিলেন মাহমুদউল্লাহ-মুশফিকরা। কিন্তু রাজকোটে দ্বিতীয় ম্যাচেই কঠিন বাস্তবতার মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ। রোহিত শর্মার তা-বে ৮ উইকেটে হেরে গেছে সফরকারীরা। সিরিজে ভারত ফিরেছে ১-১ সমতায়।

রাজকোটে সাদামাটা ব্যাটিং ও নির্বিষ বোলিংয়ে ভারতের কাছে অসহায় আত্মসমার্পণ করেছে বাংলাদেশ। তাই আগামীকাল নাগপুরেই মীমাংসা হবে সিরিজের। অলিখিত এই ফাইনাল জয়ের আশা ছাড়ছে না অতিথিরা। কাল দলের প্রতিনিধি হয়ে প্রচারমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলা পেসার শফিউল ইসলাম জানালেন ছোট ছোট ভুলগুলো এড়াতে পারলেই সিরিজ জিততে পারবে বাংলাদেশ।

দ্বিতীয় ম্যাচ ভুলে টাইগারদের চোখ এখন সিরিজ জয়ে। শফিউল আশায় আছেন সিরিজ জয়ের, ‘আমাদের এখনো সুযোগ আছে, যদি আমরা ভালো ক্রিকেট খেলি। প্রথম ম্যাচটা যে রকম খেলেছি, সে রকম যদি খেলতে পারি। আর এই ম্যাচে কিছু ছোট ছোট ভুল ছিল, যদি আমরা সামনের ম্যাচে এই ভুলগুলো না করি, অবশ্যই, আমাদের সিরিজ জেতা সম্ভব। আশা করি, আমরা দৃঢ়ভাবে ঘুরে দাঁড়াব।’

পরশু দুইবার জীবন পেয়ে ব্যক্তিগত সংগ্রহ ত্রিশ ছাড়াতে পারেননি ওপেনার লিটন দাস। শেষ পর্যন্ত নিজের উইকেট দিয়ে এসেছেন তিনি। সৌম্য, মুশফিকরাও তার মতো আত্মহত্যা করেছেন। পৌনে দুশো রানের আশা জাগানো বাংলাদেশ শেষ পর্যন্ত দলীয় সংগ্রহ কোনোরকম দেড় শ ছাড়িয়েছে। রোহিত-ধাওয়ানদের ঝড়ের মুখে পুঁজিটা আগলে রাখতে পারেননি বোলাররা।

বেশির ভাগ বোলার খুঁজে পাননি পাননি সঠিক লাইন ও লেংথ। তরুণ বোলার আমিনুল ইসলাম বিপ্লব ছাড়া সবাইকেই দেখা গেল ছন্নছাড়া। তাতে আত্মবিশ^াসে ঘাটতি পড়েনি বলে দাবি শফিউলের। কালকের ম্যাচে অন্য বাংলাদেশ দেখা যাবে বলে অঙ্গীকার করলেন তিনি, ‘আমরা ব্যাটিংয়ে-বোলিংয়ে ছোট ছোট কিছু ভুল করেছি। সেগুলো নিয়ে আমরা কাজ করব। ওই ত্রুটি-বিচ্যুতিগুলো যদি আমরা জয় করতে পারি, তাহলে ভালো কিছু করতে পারব।’

দ্বিতীয় ম্যাচে সিরিজ জয়ের সুযোগ হাতছাড়া হওয়ার আক্ষেপে পুড়ছেন বাংলাদেশের অভিজ্ঞ পেসার, ‘বড় সুযোগ ছিল। এক ম্যাচ আগে যদি সিরিজ জিততে পারতাম, তাহলে অবশ্যই ভালো লাগত। হারলে তো মন খারাপ লাগবেই। তবে হারার পর কিভাবে ফেরা যায় সেটাই মূল কথা। সামনের ম্যাচের জন্য এখন আমরা তৈরি হচ্ছি। এই ম্যাচ ভুলে গিয়ে, এই ম্যাচের ভুলগুলো শুধরে, সামনের ম্যাচে মনোযোগ দিচ্ছি।’

সিরিজ জয়ের জন্য মরিয়া হয়ে মাঠে নামবে ভারতও। রাজকোটে রোহিতরা যেভাবে একচ্ছত্র আধিপত্যে জিতেছে তাতে করে আত্মবিশ্বাস তাদেরও ফিরে এসেছে। ৪৩ বলে ৮৫ রানের বিস্ফোরক ইনিংস খেলেছেন ভারতের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক। ইনিংসে ৬টি করে চার-ছক্কা মেরেছেন তিনি। সেখানে বাংলাদেশ ছক্কা মারতে গিয়েই ভুল শটে আউট হয়েছেন।