ভেট্টোরির জন্য অপেক্ষা

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৯ | ৯ কার্তিক ১৪২৬

ভেট্টোরির জন্য অপেক্ষা

ক্রীড়া প্রতিবেদক ১২:৫৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ০৬, ২০১৯

print
ভেট্টোরির জন্য অপেক্ষা

ত্রিদেশীয় সিরিজের পর এক মাসের বেশি সময়ের বিরতি। মাঠে খেলা না থাকলেও বসে নেই বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা; প্রস্তুত হচ্ছেন জাতীয় ক্রিকেট লিগের নতুন মৌসুমের জন্য। আগামী ১০ অক্টোবর শুরু হবে দীর্ঘ পরিসরের ফরমেটের এই টুর্নামেন্ট। যা জাতীয় দলে এবং আশপাশে থাকা ক্রিকেটারদের জন্য ভারত সফরের প্রস্তুতির মঞ্চ।

হোম অব ক্রিকেট খ্যাত মিরপুরে বেশ কদিন ধরে জাতীয় লিগের উত্তাপটা টের পাওয়া যাচ্ছে। একাডেমি মাঠে ও শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে ঘাম ঝরানো প্রস্তুতি চলছে। তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মুশফিকুর রহিমসহ জাতীয় দলের প্রায় সবাই নিয়মিত অনুশীলন করে যাচ্ছেন। সাকিব আল হাসান ও লিটন দাস আছেন ক্যারিবীয় সফরে। দ্বিতীয়জন দুই ম্যাচ খেলেই দেশে ফিরে আসছেন। সাকিবের দল বার্বাডেজ উঠেছে ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (সিপিএল) প্লে-অফে।

দুজনের কাছেই সিপিএল ভারত সিরিজের প্রস্তুত। লিটনের প্রস্তুতি ভালো হয়নি। দুটো ম্যাচেই ব্যাটিং করেছেন টি-টোয়েন্টি মেজাজের বাইরে। উইকেটে থিতু হওয়ার পরও ইনিংস লম্বা করতে পারেননি একটিতেও। সেই হতাশা নিয়ে লিটন ফিরলেও সাকিব আছেন দারুণ ছন্দে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিমানে চড়ার আগে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার বলে গেছেন সিপিএল দিয়েই ভারত সফরের জন্য প্রস্তুত হবেন তিনি।

লিটন প্রস্তুতির মূল অংশ সারবেন জাতীয় লিগে খেলে। তার মতো জাতীয় দলের প্রায় সবাই আছেন অনুশীলনে। খেলার মধ্যে থাকায় ভারত সফরের জন্য জাতীয় দলের ক্যাম্প শুরু হবে একটু দেরিতে। কাল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান জানালেন ২৫ অক্টোবর ক্যাম্প শুরুর আগেই দলে যোগ দেবেন স্পিন বোলিং কোচ ড্যানিয়েল ভেট্টোরি। থাকবেন পুরো সফরেই। তবে ব্যাটিং পরামর্শক নিল ম্যাকেঞ্জিকে পাওয়া যাবে প্রথম টেস্টের আগ পর্যন্ত।

আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ জয়ের আত্মবিশ্বাস নিয়ে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু হয়েছিল বাংলাদেশ দলের। লক্ষ্য পূরণ না হওয়ায় অভিযানে ব্যর্থ হয়েছেন মাশরাফিরা।

টাইগারদের ব্যর্থতায় বলির পাঁঠা বানানো হয়েছে প্রধান কোচ স্টিভ রোডস। ইংলিশ কোচকে ডেকে এনে চাকরিচ্যুত করেছে বিসিবি। বিশ্বকাপ দিয়ে বাংলাদেশ অধ্যায় শেষ হয়ে গেছে পেস বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালস এবং স্পিন কোচ সুনীল যোশিরও। দুজনেরই চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়েছে; তা নবায়ন আগ্রহ দেখায়নি বিসিবি।

প্রায় নতুন একটা কোচিং বিভাগ দিয়ে শুরু হয়েছে বাংলাদেশের পথচলা। রোডসের শূন্যস্থান পূরণ করেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার অন্তর্বর্তীকালীন সাবেক কোচ রাসেল ডমিঙ্গো।
সহকারী হিসেবে তিনি পেয়েছেন দুই স্বদেশী ম্যাকেঞ্জি ও ফিল্ডিং কোচ রায়ান কুককে। তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন পেস বোলিং কোচ চার্ল ল্যাঙ্গেভেল্ট। স্পিন কোচ হিসেবে ভেট্টোরি নিয়োগ পেলেও এখনো বাংলাদেশে আসেননি।

নিউজিল্যান্ডের কিংবদন্তি স্পিনারের সঙ্গে বিসিবির চুক্তি অবশ্য বেশি সময়ের নয়; মাত্র একশ দিনের। প্রায় সাড়ে তিন মাসের এই দিনক্ষণ গণনা শুরু হবে ভারত সিরিজের আসন্ন ক্যাম্প দিয়ে। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী ২৫ অক্টোবর ক্যাম্প শুরুর দিন থেকেই থাকবেন কিউই সাবেক অধিনায়ক। এমনটাই নিশ্চিত করলেন বিসিবি ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির প্রধান আকরাম খান।

কাল প্রচার মাধ্যমকে তিনি বলেছেন, ‘আমাদের অনুশীলন শুরু হবে ২৫ তারিখ থেকে। তার আগেই সে (ভেট্টরি) দেশে আসছে। সেই সফর থেকে থাকবে দলের সঙ্গে।’

নিল ম্যাকেঞ্জির জন্য পরিস্থিতিটা একটু অন্যরকম। গত বছর থেকে মূলত সীমিত ওভারের ক্রিকেটে ব্যাটিং পরামর্শক হিসেবে কাজ করেন। তবে টেস্ট ক্রিকেটে ব্যাটিংয়ে বিভাগের দায়িত্ব নেননি। ম্যাকেঞ্জির কাজ নিয়ে অবশ্য দারুণ সন্তুষ্ট ব্যাটসম্যানরা। সিনিয়র বেশ কয়েকজনই দক্ষিণ আফ্রিকানকে নিয়ে তাদের মুগ্ধতার কথা বলেছেন।

আকরাম জানালেন, টেস্টের জন্যও পূর্ণকালীন একজন ব্যাটিং পরামর্শক দরকার। তাই ম্যাকেঞ্জিকে আপাতত প্রথম টেস্টের জন্য রাজি করিয়েছে বিসিবি।