২৬০ রানে থামলো আফগানিস্তান, বাংলাদেশের টার্গেট ৩৯৮

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৫ আশ্বিন ১৪২৬

২৬০ রানে থামলো আফগানিস্তান, বাংলাদেশের টার্গেট ৩৯৮

ক্রীড়া ডেস্ক ১২:৫২ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ০৮, ২০১৯

print
২৬০ রানে থামলো আফগানিস্তান, বাংলাদেশের টার্গেট ৩৯৮

বৃষ্টির কারণে চতুর্থ দিনের নির্ধারিত সময়ে খেলা শুরু হয়নি। খেলা গড়ায় প্রায় আড়াই ঘণ্টা পরে। ৮ উইকেটে ২৩৭ রান নিয়ে দিনের খেলা শুরু করে আফগানিস্তান। গতকালের রানের সাথে যোগ হয় ২৩ রান। সব মিলিয়ে আফগানদের লিড দাঁড়িয়েছে ৩৯৭ রান। শেষ দুটি উইকেট ভাগাভাগি করে নিয়েছেন সাকিব আল হাসান এবং মেহেদী হাসান মিরাজ। সুতরাং চতুর্থ ইনিংসে জয়ের জন্য ৩৯৮ রানের বিশাল লক্ষ্য সামনে রেখে এখন ব্যাট করছে বাংলাদেশ।

এদিকে শনিবার রাত থেকে রোববার সকাল পর্যন্ত থেমে থেমে বৃষ্টি হয়েছে। এতে সাগরিকার মাঠ খেলার অনুপযোগী হয়ে পড়ে। ফলে চতুর্থ দিনের খেলা শুরু হতে দেরি হয়। কাভার দিয়ে উইকেট ঢেকে রাখা হয়। ড্রেসিংরুমে বন্দি ছিলেন ক্রিকেটাররা।

অবশেষে বেলা ১১টা ৫০ মিনিটে খেলা শুরু হয়। নির্ধারণ করা হয়, দুপুর ১টায় লাঞ্চ বিরতিতে যাবে দুই দল। চা বিরতি হবে ৩টা ৪০ মিনিটে। আর ৫টা ৪০ মিনিট পর্যন্ত হবে দিনের খেলা।

চট্টগ্রাম টেস্টে বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে ১৩৭ রানের বড় লিড পায় আফগানিস্তান। তাদের দ্বিতীয় ইনিংসের প্রথম ওভারেই বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব এহসানউল্লাহ ও রহমত শাহকে তুলে নেন। সেই ধাক্কা সামলে তৃতীয় দিন শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে আফগানিস্তান ৮ উইকেট হারিয়ে ২৩৭ রান তোলে। চতুর্থ দিন ব্যাট করে ২৬০ রানে অলআউট হয় আফগানরা। বাংলাদেশ দ্বিতীয় ইনিংসে জয়ের জন্য ৩৯৮ রানের বিশাল লক্ষ্য পেয়েছে।

বাংলাদেশের হয়ে ব্যাট হাতে ৪৮ রানে অপরাজিত থাকেন মোসাদ্দেক হোসেন। সঙ্গীর অভাবে ফিফটি করতে পারেননি আগের দিন ৪৪ রানে অপরাজিত থাকা মোসাদ্দেক। তাইজুল ১৪ রানেই ফেরেন। নাঈম আউট হন ৭ রানে। আগের দিন ১৯৪ রানে শেষ করা বাংলাদেশ তাই বেশি আর এগুতো পারেনি। প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৫২ রান করেন মুমিনুল হক। এছাড়া লিটন দাস ৩৩ রান করেন।

প্রথম ইনিংসে আফগানিস্তানের হয়ে পাঁচ উইকেট নেন রশিদ খান। তিন উইকেট নেন মোহাম্মদ নবি। বাংলাদেশের হয়ে প্রথম ইনিংসে চার উইকেট নেন তাইজুল ইসলাম। দুটি করে উইকেট নেন সাকিব আল হাসান ও নাঈম হাসান। দ্বিতীয় ইনিংসে সাকিব তিন উইকেট নিয়েছেন। দুটি করে উইকেট নিয়েছেন তাইজুল ইসলাম ও নাঈম হাসান ও মেহেদি মিরাজ।

বাংলাদেশ একাদশ: সাদমান ইসলাম, লিটন দাস, মুমিনুল হক, মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক), সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সৌম্য সরকার, মোসাদ্দেক হোসেন, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম ও নাঈম হাসান।

আফগানিস্তান একাদশ: ইহসানউল্লাহ, ইব্রাহিম জাদরান, রহমত শাহ, হাশমতউল্লাহ শাহীদি, আসগর আফগান, মোহাম্মদ নবি, আফসার জাজাই (উইকেটরক্ষক), রশিদ খান (অধিনায়ক), ইয়ামিন আহমদজাই, কায়েস আহমেদ ও জহির খান।