ইংলিশ ওপেনার ব্যাট করেছেন পাঁচ দিনই

ঢাকা, রবিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

ইংলিশ ওপেনার ব্যাট করেছেন পাঁচ দিনই

ক্রীড়া ডেস্ক ১২:৩১ অপরাহ্ণ, আগস্ট ০৬, ২০১৯

print
ইংলিশ ওপেনার ব্যাট করেছেন পাঁচ দিনই

টেস্ট ম্যাচ হয় পাঁচদিনের, সবদিনই যদি আপনি ব্যাটিং করার সুযোগ পান তাহলে অনুভূতি কেমন হবে? কিংবা আদৌ কি সবদিন ব্যাটিংয়ের সুযোগ পাওয়া সম্ভব? ক্রিকেটে অসম্ভব শব্দের জায়গা খুবই কম। তাই এক টেস্টে পাঁচদিনই ব্যাটিং করার নজিরও দেখা গেছে বেশ কয়েকবার।

সঠিকভাবে বললে গতকালসহ মোট ১০ জন ক্রিকেটার একই ম্যাচের পাঁচ দিন ব্যাটিং করার বিরল কীর্তির সঙ্গী হয়েছেন। যার মধ্যে সবশেষ নামটি হলো ইংল্যান্ডের ওপেনার ররি বার্নস। তাও কি-না মর্যাদা অ্যাশেজ সিরিজে নিজের অভিষেক ম্যাচেই এ কীর্তি গড়েছেন বার্নস।

এজবাস্টনে সিরিজের প্রথম ম্যাচের প্রথম দিন টস জিতে আগে ব্যাট করেছিল অস্ট্রেলিয়া। তবে ৮০.৪ ওভারে ২৮৪ রান করে তারা অলআউট হয়ে যায়। যে কারণে শেষ বিকালে ২ ওভারের জন্য নামতে হয় ইংল্যান্ডকে। তখন ব্যাটিংয়ে নামেন জেসন রয় এবং ররি বার্নস। পরে দ্বিতীয় দিনের পুরোটা সময় ব্যাটিং করে নিজের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি তুলে নেন বার্নস। দিনশেষে অপরাজিত থেকে যান ১২৫ রানে। যে কারণে তৃতীয় দিনেও সুযোগ পেয়ে যান ব্যাটিংয়ে নামার। তবে সেদিন বেশিক্ষণ ব্যাটিং করা হয়নি তার। দিনের ১৫তম ওভারে আউট হন ব্যক্তিগত ১৩৩ রানে। পরে তৃতীয় দিনে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসের ৩১ ওভার ব্যাটিং করে অস্ট্রেলিয়া। চতুর্থ দিনেও তারা আরও ৮১ ওভার। ইংল্যান্ডের ৯০ রানের লিড পেরিয়ে তাদের সামনে ৩৯৮ রানের লক্ষ্য ছুড়ে দেয় সফরকারীরা।

তখনো চতুর্থ দিনের বেশ কিছু সময় বাকি থাকায় ব্যাটিংয়ে নামেন ইংল্যান্ড। ৭ ওভার ব্যাটিং করে ১৩ রান তুলে অপরাজিত থাকেন দুই ওপেনার রয় ও বার্নস। যার ফলে টানা পঞ্চম দিনে ব্যাটিংয়ে নামার সুযোগ তৈরি হয় বার্নসের সামনে এবং গতকাল ব্যাটিং করতে নেমেই নাম লেখান এক ম্যাচের পাঁচ দিনই ব্যাটিং করার বিরল কৃতিত্বের।

অসাধারণ এক রেকর্ড গড়লেও প্রথম ইনিংসের মতো উজ্জ্বল হয়নি বার্নসের ব্যাট। দিনের তৃতীয় ওভারেই ব্যক্তিগত ১১ রানের মাথায় সাজঘরে ফিরে গেছেন তিনি। সবার আগে এক ম্যাচের পাঁচ দিনই ব্যাটিং করা প্রথম ব্যাটসম্যান হলেন ভারতের লক্ষ্মীনারসু জয়সিমহা। ১৯৬০ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে কলকাতা টেস্টে এ কীর্তি গড়েন তিনি। মাঝে আরও আটজনের পর ১০ম ব্যাটসম্যান হিসেবে এ রেকর্ডে নাম লিখিয়েছেন বার্নস।