ঢাকা, রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪ | ৬ শ্রাবণ ১৪৩১

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

২২ বছরেই ফুটবলকে বিদায়ের ঘোষণা সাফজয়ী স্বপ্নার

অনলাইন ডেস্ক
🕐 ১২:৩৯ অপরাহ্ণ, মে ২৭, ২০২৩

২২ বছরেই ফুটবলকে বিদায়ের ঘোষণা সাফজয়ী স্বপ্নার

গতবছর স্বাগতিক নেপালকে হারিয়ে দক্ষিণ এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের আসর সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশ জাতীয় নারী ফুটবল দল। টুর্নামেন্টে চারটি গোল করে বাংলাদেশকে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার ক্ষেত্রে বড় অবদান রেখেছেন সিরাত জাহান স্বপ্না। যদিও ইনজুরির কারণে ফাইনাল খেলতে পারেননি তিনি। হঠাৎ করেই সব ধরনের ফুটবল থেকে নিজেকে গুটিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন ২২ বছর বয়সী এই স্ট্রাইকার।

শুক্রবার (২৬ মে) বিকেলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে নিজের আইডিতে ফুটবলকে বিদায়ের ঘোষণা দেন স্বপ্না। এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে ফুটবল ছাড়ার কারণ বলতে অপারগতা প্রকাশ করেন তিনি। তবে অবসাদ ও অভিমানে বৃহস্পতিবার ছুটি নিয়ে ফুটবল ক্যাম্প থেকে রংপুরের বাড়িতে গেছেন এই ফুটবলার বলে জানা গেছে।

সূত্র জানিয়েছে, ফুটবলের কারণেই অবসাদে পড়েছেন স্বপ্না। গত সেপ্টেম্বরে সাফ চ্যাম্পিয়ন হয়ে দেশে ফেরার পর এখন পর্যন্ত কোনো ম্যাচ খেলতে পারেননি নারী ফুটবলাররা। দুই দফা প্রীতি ম্যাচের আয়োজনের চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছে বাফুফে। এমনকি সাবিনাদের ২০২৪ অলিম্পিকের বাছাই পর্ব খেলতে মিয়ানমারে পাঠায়নি তারা।

এদিকে অনেক ফুটবলারের দেশের বাইরে খেলার প্রস্তাব ছিল। তবে নারী ফ্রাঞ্চাইজি লিগের জন্য সেই প্রস্তাবেও সাড়া দিতে পারেননি তারা। কিন্তু নারী ফ্রাঞ্চাইজ লিগ আদৌও কবে চালু হবে, এ নিয়েও রয়েছে বাফুফের অনিশ্চয়তা। সব কিছু মিলিয়েই হতাশ হয়ে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন স্বপ্না।

এর আগে সাফ চ্যাম্পিয়ন দলের দুই সদস্য ফুটবল ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন। তারা অবশ্য বাফুফের ক্যাম্প থেকে বাদ পড়েছিলেন পারফরম্যান্সের জন্য। জাতীয় দলের ক্যাম্পে না থাকতে পারলে তাদের আর ফুটবলে কিছু করার সুযোগ নেই এই ভেবে তারা অবসরের ঘোষণা দিয়েছিলেন।

তবে স্বপ্নার বিষয়টি ভিন্ন। তিনি ক্যাম্পে থেকেও খেলার সুযোগ না পাওয়ায় হতাশাগ্রস্ত হয়ে এমনটি ভাবছেন। বিভিন্ন সূত্রের খবর, স্বপ্নার মতো সাফ চ্যাম্পিয়ন দলের অনেকেরই একই অবস্থা। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার আট মাসের মধ্যেও একটি ম্যাচ খেলতে পারেননি তারা। আবার কবে খেলবেন সেটিরও কোনো নিশ্চয়তা নেই।

 
Electronic Paper