পালতোলা নৌকায় আটলান্টিক পাড়ি!

ঢাকা, বুধবার, ১ ডিসেম্বর ২০২১ | ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

বিশ্বকাঁপানো জলবায়ুকন্যা

পালতোলা নৌকায় আটলান্টিক পাড়ি!

রোকেয়া ডেস্ক
🕐 ২:৩৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ০২, ২০১৯

পালতোলা নৌকায় আটলান্টিক পাড়ি!

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল জাতিসংঘের জলবায়ু সম্মেলন। সম্মেলনে অংশগ্রহণের জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয় গ্রেটা থানবার্গকে। কিন্তু এতেই বাধে বিপত্তি। কারণ অতিরিক্ত কার্বন নিঃসরণ করে বলে, কখনো আকাশপথে ভ্রমণ, এমনকি জাহাজে না চড়ারও ঘোষণা দিয়েছিলেন গ্রেটা। তাহলে তিনি সুইডেন থেকে নিউইয়র্কে যাবেন কীভাবে?

সিদ্ধান্ত হয়, শূন্য কার্বন নিঃসরণ করে এমন একটি পালতোলা নৌকায় চড়ে আটলান্টিক মহাসাগর পাড়ি দেবেন গ্রেটা। এক্ষেত্রে মালিজিয়া-টু নামে দ্রুতগতি সম্পন্ন এমন একটি যানে চড়ে বসেন তিনি। ৬০ ফুট দৈর্ঘ্যরে এই নৌকা পরিচালনা করেছেন বরিস হারম্যান। পাল তোলা এই যানের বৈদ্যুতিক শক্তি আসে সোলার প্যানেল আর পানির নিচে থাকা কয়েকটি টারবাইনের মাধ্যমে। ফলে এর সাহায্য বাতাসে কোনো কার্বন ছড়িয়ে পড়ে না।

আগস্টে আটলান্টিক সমুদ্রে প্রায়ই ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানে। তাই এই যাত্রাটি ছিল খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। থানবার্গের সঙ্গে তার বাবা ছাড়াও মোনাকোর রাজপরিবারের সদস্য পিয়েরে কাসিরাঘি ও সুইডিশ তথ্যচিত্র নির্মাতা নাথান গ্রসম্যান ওই দুঃসাহসিক ভ্রমণে ছিলেন। দুই সপ্তাহের অভিযানে প্রায় তিন হাজার মাইল পাড়ি দিয়ে ২৮ আগস্ট নিউইয়র্কের ম্যানহাটনের একটি জেটিতে এসে তাদের নৌকা ভেড়ে। এ সময় থানবার্গকে স্বাগত জানাতে প্রায় দুই হাজার মানুষ উপস্থিত হয়েছিলেন।

 
Electronic Paper