শেষ বিদায়

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০১৯ | ৩ শ্রাবণ ১৪২৬

শেষ বিদায়

রোকেয়া ডেস্ক ১১:২৫ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ০৩, ২০১৯

print
শেষ বিদায়

ডায়ানার মৃত্যুর পর স্বয়ং ব্রিটেনের রানীকে পর্যন্ত সমালোচিত হতে হয়েছিল তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া জানাতে বিলম্ব করায়। পুত্রের বিবাহবিচ্ছেদ সংক্রান্ত তিক্ততার জের সত্ত্বেও রানীকে সেলাম ঠুকতে হয়েছিল ডায়ানার জনপ্রিয়তার কাছে।

৫ সেপ্টেম্বর বাকিংহাম প্যালেস থেকে পাঠানো এক টেলি-শোকবার্তায় রানী এলিজাবেথ ডায়ানার অসামান্য জীবনাদর্শকে ‘অবিস্মরণীয়’ বলে আখ্যা দেন। ৬টি কালোঘোড়ায় অস্ত্রসজ্জিত রাজকীয় সওয়ারি সমেত কেনসিংটন প্যালেস থেকে ৬ সেপ্টেম্বর প্রিন্সেস ডায়ানার শবযাত্রা শুরু হয়। চার মাইলের এ শবযাত্রায় পথের দুই পাশে হাজারো ভক্ত-শুভানুধ্যায়ীর সঙ্গে ছিলেন অশ্রুসিক্ত ডায়ানার দুই সন্তান উইলিয়াম ও হ্যারি।

আজকের ‘ডিউক অব ক্যামব্রিজ’ প্রিন্স উইলিয়াম তখন মাত্র ১৫ বছর বয়সী কিশোর, আর হ্যারির বয়স ১৩। ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবেতে ডায়ানার স্মৃতির উদ্দেশে এক আবেগঘন অন্তিমস্তুতি পাঠ করেছিলেন তার ভাই চার্লস স্পেন্সার। এল্টন জনের শোকসংগীত পরিবেশনাও ছিল সে অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠানে। সে অনুষ্ঠান টেলিভিশনে প্রত্যক্ষ করেছিল বিশ্বের প্রায় বত্রিশ মিলিয়ন মানুষ। অবশেষে তার কফিন নিয়ে যাওয়া হয় স্পেন্সার মালিকানাধীন অ্যালথর্পের একটি ছোট্ট দ্বীপে।