চা বাগানে ভোট উত্তাপ

ঢাকা, শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯ | ৩ কার্তিক ১৪২৬

চা বাগানে ভোট উত্তাপ

তোফায়েল পাপ্পু, শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) ৫:২৫ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৬, ২০১৮

print
চা বাগানে ভোট উত্তাপ

প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের অপরূপ লীলাভূমি চায়ের রাজধানী মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল। ভোরের আলো ফুটতেই দেখা যায়, কুয়াশা ভেদ করে হেঁটে যাচ্ছেন শ্রমিকরা চা-পাতা তুলতে। কিন্তু অন্য দিনের তুলনায় বাগানে বাগানে এখন অন্য রকম আমেজ লক্ষ করা যায়। সব কোলাহল ছাপিয়ে বাতাসে ভাসে মাইকের আওয়াজ। ভোটের স্লোগান।

গতকাল শ্রীমঙ্গল শহর থেকে প্রায় দুই কিলোমিটার দূরে ভাড়াউড়া চাবাগানে পাওয়া গেল সে রকম আমেজ। এটা যে নির্বাচনী আমেজ বুঝতে কোনো দ্বিধা নেই। কারণ, শ্রীমঙ্গল উপজেলার এই এলাকার দোকানঘর, মাটির ঘর, বিদ্যালয় ও গাছে সাঁটানো প্রার্থীদের পোস্টারই বলে দেয় এখন এখানে চলছে নির্বাচনী উৎসব।

চাবাগান অধ্যুষিত শ্রীমঙ্গল-কমলগঞ্জ উপজেলা নিয়ে গঠিত এই সংসদীয় আসনে চাবাগান আছে প্রায় ৭০টির মতো। স্থানীয় লোকজন বলছেন, চা শ্রমিক ভোটারদের ঘরে ঘরে সব প্রার্থীর প্রতিযোগিতামূলক আনাগোনায় ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা দেখা দিয়েছে এখানে।

এই আসনে মোট ভোটারের সংখ্যা ৩ লাখ ৯৮ হাজার ৮৩০ জন। এই ভোটারদের মধ্যে প্রায় লক্ষাধিক চা শ্রমিক ভোটার রয়েছেন যারাই আসলে এই আসন জয়-পরাজয় নির্ধারণ করে দেন। একটি চায়ের দোকানে আড্ডা দিচ্ছিলেন দুলাল হাজরা বললেন, চা শ্রমিকরা আগের মতো পিছিয়ে নেই। গত ১০ বছরে চাবাগানে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। বেড়েছে শিক্ষার হার। বিদ্যুতের আলোয় আলোকিত হয়েছে বেশিরভাগ চাবাগান। ভাড়াউড়া বাগানে কারখানা থেকে ফিরছিলেন তরুণী এবং নতুন ভোটার দিপালী তাতি।

জিজ্ঞেস করতেই বললেন, ইবার পরথম ভুট দিমু। যে ভালা মানুস তারেই আমি ভুট দিমু।এ আসনে নৌকা প্রতীক নিয়ে প্রার্থী হয়েছেন বর্তমান সংসদ সদস্য আব্দুস শহীদ। ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে বিএনপির প্রার্থী মুজিবুর রহমান, উদীয়মান সূর্য প্রতীক নিয়ে গণফোরাম প্রার্থী হয়েছেন শান্তিপদ ঘোষ আর হাতপাখা প্রতীক নিয়ে মাঠে নেমেছেন ইসলামী আন্দোলনের সালাউদ্দিন। ভাড়াউড়ার পাশের বাগানটি হচ্ছে জাগছড়া চাবাগান এলাকায়ও চলছিল প্রার্থীদের তুমুল প্রচারণা। ভুড়ভুড়িয়া, ফুলছড়া, সাতগাঁও, মির্জাপুর চাবাগানে প্রার্থী ও নেতাকর্মীরা গণসংযোগে ব্যস্ত সময় পার করছেন। ভাড়াউড়া থেকে জাগছড়া ও ভুরভুড়িয়া যাওয়ার পথে টিলার ওপর সবুজ বাগানের মধ্য দিয়ে চলতে চলতে চোখে পড়ল চারদিক ছেয়ে আছে শত শত পোস্টারে। জাগছড়া চাবাগান থেকে মাজদিহী চাবাগানের ভেতর ঢুকেই চোখে পড়ে দুর্গা মন্দির। সেখানে বয়স্ক চা শ্রমিক প্রদীপ রিকিয়াশন নির্বাচন নিয়ে কথা বলছিলেন।

তিনি জানালেন, স্বাধীনতার পর থেকেই ভোট দিয়ে যাচ্ছি। কিন্তু আমাদের জীবনমানের কোনো উন্নয়ন হয়নি। এবার যে প্রার্থী আমাদের ভূমির অধিকার নিশ্চিত করার প্রতিশ্রুতি দেবে তাকেই এবার ভোট দেব।

 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ