আজ চাঁদ দেখা গেলে ঈদে মিলাদুন্নবী ১৯ অক্টোবর

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১ | ৬ কার্তিক ১৪২৮

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

আজ চাঁদ দেখা গেলে ঈদে মিলাদুন্নবী ১৯ অক্টোবর

নিজস্ব প্রতিবেদক
🕐 ১১:৪৮ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ০৭, ২০২১

আজ চাঁদ দেখা গেলে ঈদে মিলাদুন্নবী ১৯ অক্টোবর

আজ ১৪৪৩ হিজরির ২৯ সফর। আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রবিউল আউয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেলে আগামী ১৯ অক্টোবর (মঙ্গলবার) ঈদে মিলাদুন্নবি পালিত হবে।

রবিউল আউয়াল মাস গণনা ও পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবীর তারিখ নির্ধারণে সন্ধ্যায় জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সভাকক্ষে চাঁদ দেখা কমিটির বৈঠক বসবে।

এসময় দেশের আকাশে রবিউল আউয়ালের চাঁদ দেখা গেলে ৮ অক্টোবর (শুক্রবার) থেকে রবিউল আউয়াল মাস গণনা শুরু হবে। সে হিসেবে ঈদে মিলাদুন্নবী হবে আগামী ১৯ অক্টোবর (মঙ্গলবার)।

আর আজ সন্ধ্যায় (৭ অক্টোবর) চাঁদ দেখা না গেলে সফর মাস ৩০ দিন পূর্ণ হবে। সেক্ষেত্রে ৯ অক্টোবর (শনিবার) রবিউল আউয়াল মাস শুরু হবে। সে হিসেবে আগামী ২০ অক্টোবর (বুধবার) ঈদে মিলাদুন্নবী উদযাপিত হবে।

তাই রবিউল আউয়াল মাস গণনা ও ঈদে মিলাদুন্নবীর তারিখ জানতে সন্ধ্যা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

বুধবার (৬ অক্টোবর) ইসলামিক ফাউন্ডেশন প্রকাশিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা যায়।

এতে বলা হয়েছে, ১৪৪৩ হিজরি সনের পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবীর (সা.) তারিখ নির্ধারণ ও পবিত্র রবিউল আউয়াল মাসের চাঁদ দেখার সিদ্ধান্ত নিতে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বায়তুল মোকাররমে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সভাকক্ষে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হবে। বায়তুল মোকাররম সভাকক্ষে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের এ সভায় সভাপতিত্ব করবেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ও জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভাপতি মো. ফরিদুল হক খান এমপি।

বাংলাদেশের আকাশে কোথাও রবিউল আউয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেলে তা টেলিফোনে অথবা সংশ্লিষ্ট জেলার জেলা প্রশাসক অথবা উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে জানানোর জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

আরবি ‘ঈদে মিলাদুন্নবী’র শাব্দিক অর্থ- হজরত মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের জন্মদিনের আনন্দোৎসব। বিশ্বব্যাপী মুসলমানরা ১২ রবিউল আউয়াল হজরত মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের জন্ম ও মৃত্যু (ওফাত) দিবস হিসেবে পালন করেন।

বাংলাদেশে ঈদে মিলাদুন্নবীর দিন রাষ্ট্রীয়ভাবে সবার জন্য সাধারণ ছুটি থাকে। এ দিন বাংলাদেশের প্রায় সব মসজিদ, খানকাহ, দরগাহ ও বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে ঈদে মিলাদুন্নবী, সীরাতুন্নবী, উসওয়াতুন্নবী এবং মাজিউন্নবীসহ নানা শিরোনামে মিলাদ-মাহফিল, আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

 
Electronic Paper