‘আলেম’ কারা?

ঢাকা, শুক্রবার, ১০ এপ্রিল ২০২০ | ২৭ চৈত্র ১৪২৬

‘আলেম’ কারা?

খোলা কাগজ ডেস্ক ৯:০৯ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ২৩, ২০২০

print
‘আলেম’ কারা?

তানিয়া ইয়াসমিন, চরফ্যাশন, ভোলা
আলেম অভিধা কোথায় ব্যবহার করা যাবে?
আলেম, ফকিহ ও মুজতাহিদ- এ উপাধিগুলো প্রায় অভিন্ন অর্থ নির্দেশ করে। সেটা হচ্ছে- যিনি শরিয়া বিধানে পৌঁছার জন্য নিজের শ্রম ব্যয় করেন এবং যার শরিয়া দলিল থেকে বিধান নির্ণয় করার মতো যোগ্যতা রয়েছে।

এর জন্য প্রয়োজন ইজতিহাদ করার প্রয়োজনীয় জ্ঞান অর্জন করা। তাই এ অভিধায় (আলেম, মুজতাহিদ বা ফকিহ) অভিষিক্ত শুধু তাকেই করা যাবে যার মাঝে ইজতিহাদ করার শর্তাবলি পরিপূর্ণ হয়েছে।

আলেমরা এ শর্তগুলোর ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন যাতে ইলম ছাড়া আল্লাহ্র দ্বীনের ব্যাপারে কথা বলার দরজা যে কারও জন্য উন্মুক্ত না থাকে; হোক সে ছোট কিংবা বড়।

কোরআন-সুন্নাহর দলিল কী?

সুন্নাহ মুখস্থ থাকা শর্ত নয়। বরং সুন্নাহর গ্রন্থগুলো থেকে সুন্নাহ বের করার যোগ্যতা থাকাই যথেষ্ট। সুন্নাহর জ্ঞানের মধ্যে বেশি গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে সুন্নাহর প্রসিদ্ধ গ্রন্থগুলোতে যা রয়েছে সেগুলো। যেমন সহিহ বুখারি, সহিহ মুসলিম, সুনানে আবু দাউদ, সুনানে তিরমিযি, সুনানে নাসাঈ, সুনানে ইবনে মাজাহ এবং এগুলোর সম্পূরক গ্রন্থগুলো।

এ হাদিসগুলোর মধ্যে কোনটা সহিহ, কোনটা যয়িফ (দুর্বল) এ বিষয়ে জ্ঞান থাকা।

দ্বিতীয় শর্ত, ইজমা সংঘটিত হওয়া মাসআলাগুলো জানা থাকা।

তৃতীয় শর্ত, আরবি ভাষায় পারদর্শী হওয়া।

আরবির সবকিছু মুখস্থ থাকতে হবে এমনটি নয়। বরং অর্থ জানতে পারার মতো সক্ষমতা থাকা এবং বিশেষ বিশেষ বাক্য-কাঠামো জানা থাকা।

চতুর্থ শর্ত : উসুলুল ফিকহের জ্ঞান থাকা। কিয়াস উসুলুল ফিকহের অন্তর্ভুক্ত। কারণ উসুলুল ফিকহ হচ্ছে- বিধান নির্ণয়ের মূলভিত্তি।

পঞ্চম শর্ত : নাসেখ (রহিতকারী) ও মানসুখ (রহিত) জানা থাকা।

ইজতিহাদের শর্ত কী?

ইজতিহাদ করার জন্য যে দলিলগুলো জানা প্রয়োজন সেগুলো জানা থাকা। যেমন- আহকাম সংক্রান্ত আয়াতগুলো ও হাদিসগুলো।

হাদিস সহিহ ও দুর্বল হওয়া সংক্রান্ত জ্ঞান জানা থাকা। যেমন- হাদিসের সনদ ও রাবিদের পরিচয় ইত্যাদি।

নাসেখ (রহিতকারী), মানসুখ (রহিত) ও ইজমা (ঐকমত্য) সংঘটিত হওয়া বিষয়গুলো জানা থাকা। যাতে করে, কোনো কিছুকে মানসুখ বলে হুকুম না দেয় কিংবা ইজমাবিরোধী কোনো হুকুম না দেয়।

যে দলিলগুলোর কারণে হুকুম পাল্টে যেতে পারে। যেমন- তাখসিস (সীমাবদ্ধকরণ), তাকয়িদ (শর্তযুক্তকরণ) ইত্যাদি দলিলগুলো জানা থাকা। যাতে করে এগুলোর সঙ্গে সাংঘর্ষিক কোনো হুকুম না দেয়। ...ইত্যাদি।