নিখুঁত পরিকল্পনাও কেন ভেস্তে যায়?

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৪ আশ্বিন ১৪২৬

নিখুঁত পরিকল্পনাও কেন ভেস্তে যায়?

খোলা কাগজ ডেস্ক ৮:৪০ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯

print
নিখুঁত পরিকল্পনাও কেন ভেস্তে যায়?

পাঠকের জন্য পরামর্শ দিয়েছেন নাবিলা আফরোজ জান্নাত

জীবনের একটা বড় অংশ কেটে গেছে পরিকল্পনা করতে করতে। বয়স যখন ১৮, তখন একটা তালিকা করেছিলাম, জীবনে কী কী করতে চাই এবং তা কত সময়ের মধ্যে। এরপর বেশ কতগুলো বছর পেরিয়ে এসে এখন জীবনের পেছনে ফিরে তাকালে দেখি, পরিকল্পনামতো অনেক কিছুই এগোয়নি। বুঝতে পারি, সব কিছুর জন্য পরিকল্পনা করলেই হয়ে যায় না। পরিকল্পনা মতো সব আগায় না।

আসলে আমরা যা চাই, তার সবই পরিকল্পনা করতে পারি, কিন্তু পরিকল্পনা তো আল্লাহও করেছেন। আমরা প্ল্যান করি জীবনে সফল হওয়ার, ধনী ও জ্ঞানী হওয়ার। এমনকি কেউ আমাকে ভালোবাসুক, এমনও চিন্তা আমাদের পরিকল্পনায় থাকে। কিন্তু মন খারাপের প্ল্যান আমরা কেউ করি না, হেরে যাওয়ারও না, অথবা এটাও না যে আমার প্ল্যানগুলো সব লণ্ডভণ্ড হয়ে যাক।

অথচ হয়। কখনো সব পরিকল্পনা মুহূর্তেই শেষ যায়। মানুষ হিসেবে আমরা ভাবতে পছন্দ করি যে সব কিছু আমার নিয়ন্ত্রণে আছে। আসলে তো না, নিয়ন্ত্রণকারী হচ্ছেন আল্লাহ।

আমার চারপাশে এমন দেখতে পাই। আমার ক’জন চাচা-মামা আছেন, যাদের বয়স চল্লিশ পেরিয়ে গেছে, অবিবাহিত। কিন্তু নিজেদের জীবনে এমন হোক, তা তারা চাননি। আল্লাহ এটাই তাদের জন্য পরিকল্পনা করে রেখেছিলেন। এমন মানুষের সংখ্যাও কি কম যারা অনেক বছর ধরে বিবাহিত কিন্তু নিঃসন্তান? এটা তাদের পরিকল্পনা ছিল না কিন্তু আল্লাহর প্ল্যান ছিল। আমার আপনার পরিচিত এমন অনেক গ্র্যাজুয়েটই আছে যারা অনেক পরিশ্রম করেও ভালো কোনো চাকরি পাচ্ছে না অথবা একদমই বেকার। জীবনে এমন তো তারা চায়নি। কিন্তু আল্লাহর পরিকল্পনা এটা।

সমাজ খুব দ্রুত আপনার দিকে আঙ্গুল তাক করা শুরু করে। যে ছেলেটার চাকরি হচ্ছে না, তার মানে এই না যে সবটাই তার আলসেমি, এটা আল্লাহর প্ল্যানেরই অংশ। যে ছেলেটা বিয়ে করছে না, মানে তো এটা নাও হতে পারে যে সে আসলেই বিয়ে করছে না। মানে এটা যে আল্লাহ তার বিয়ের জন্য যে সময়টা নির্ধারণ করে রেখেছেন, সে সময়টা এখনো আসেনি। এক দম্পতি নিঃসন্তান মানে তো এরকম নাও হতে পারে যে তারা ক্যারিয়ার, চাকরিকেই বেশি প্রাধান্য দিচ্ছে!