ইসলামে ধর্ষণের শাস্তির বিধান কী?

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারি ২০১৯ | ৫ মাঘ ১৪২৫

ইসলামে ধর্ষণের শাস্তির বিধান কী?

খোলা কাগজ ডেস্ক ১০:০৫ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১১, ২০১৯

print
ইসলামে ধর্ষণের শাস্তির বিধান কী?

প্রশ্নটি জানতে চেয়েছেন আবদুল গণি, দুপচাঁচিয়া, বগুড়া থেকে।

উত্তর : ইসলামে ধর্ষণকে ব্যভিচারে সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে। কারণ বিবাহবহির্ভূত যে কোনো যৌন সঙ্গমই ইসলামে অপরাধ। তাই ধর্ষণও এক ধরনের ব্যভিচার। ইসলামি আইন শাস্ত্রে ধর্ষকের শাস্তি ব্যভিচারকারীর শাস্তির অনুরূপ। তবে ইসলামে ধর্ষণের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত কিছু শাস্তির কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

ব্যভিচার সুস্পষ্ট হারাম এবং শিরক ও হত্যার পর বৃহত্তম অপরাধ। পবিত্র কোরআনে বলা হয়েছে, ‘আর ব্যভিচারের কাছেও যেও না। নিশ্চয়ই এটা অশ্লীল কাজ এবং মন্দ পথ।’ (সূরা আল ইসরা: ৩২)

হাদিসে বর্ণিত আছে, ‘অবিবাহিত পুরুষ-নারীর ক্ষেত্রে শাস্তি একশ বেত্রাঘাত এবং এক বছরের জন্য দেশান্তর। আর বিবাহিত পুরুষ-নারীর ক্ষেত্রে একশ বেত্রাঘাত ও রজম (পাথর মেরে মৃত্যুদ-)।’

ইসলামে ধর্ষণের কারণে মৃত্যু হলে সে প্রথমে ব্যভিচারের শাস্তি পাবে। পরে হত্যার শাস্তি পাবে। হত্যা যদি অস্ত্র দিয়ে হয় তাহলে কেসাস বা মৃত্যুদণ্ড। আর যদি অস্ত্র দিয়ে না হয়, এমন কিছু দিয়ে হয়-যা দিয়ে সাধারণত হত্যা করা যায় না। তাহলে অর্থদণ্ড। যার পরিমাণ একশ উটের মূল্যের সমপরিমাণ অর্থ।