ইসলামে সুদের ব্যাপারে কেমন শাস্তির বিধান রয়েছে?

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারি ২০১৯ | ৫ মাঘ ১৪২৫

ইসলামে সুদের ব্যাপারে কেমন শাস্তির বিধান রয়েছে?

খোলা কাগজ ডেস্ক ১০:১৭ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১০, ২০১৯

print
ইসলামে সুদের ব্যাপারে কেমন শাস্তির বিধান রয়েছে?

প্রশ্নটি জানতে চেয়েছেন মুর্শিদা আক্তার রজনী, ঝিনাইদহ থেকে।

উত্তর : ইসলামে সুদকে হারাম করা হয়েছে। সুদ সমাজের এক চরম ব্যাধি। সুদের ভয়াল থাবায় দরিদ্র মানুষ আরও দারিদ্র্যের চরমসীমায় নেমে যায়। সমাজে চলে আসে বিশৃঙ্খলা ও সামাজিক-অর্থনৈতিক অসমতা।

এ বিষয়ে মহান আল্লাহতায়ালা পবিত্র কোরআনে ইরশাদ করেছেন, ‘আল্লাহ ব্যবসা হালাল করেছেন এবং সুদ হারাম করেছেন। অতএব, যার কাছে তার রবের পক্ষ থেকে উপদেশ আসার পর সে বিরত হলো, যা গত হয়েছে তা তার জন্যই ইচ্ছাধীন। আর তার ব্যাপারটি আল্লাহর হাওয়ালায়। আর যারা ফিরে গেল, তারা আগুনের অধিবাসী-জাহান্নামি।’ (সূরা বাকারা: ২৭৫)।

হাদিসে বর্ণিত আছে, হজরত জাবির (রা.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রসুল (সা.) সুদ গ্রহীতা, দাতা ও সুদি কারবারের লেখক এবং সুদি লেনদেনের সাক্ষী, সবার ওপর লানত করেছেন।

সুদের শাস্তির কঠোরতা বিচারে নিচের হাদিসটি প্রণিধানযোগ্য। রসুল (সা.) বলেছেন, ‘সুদের গুনার ৭০টি স্তর রয়েছে, তার মধ্যে সর্বনিম্ন স্তর হচ্ছে আপন মাকে বিয়ে (মায়ের সঙ্গে জিনা) করা।’ (সুনানে ইবনে মাজাহ : ২২৭৪)।