বাজারে প্রবেশের ফজিলত

ঢাকা, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮ | ৩০ কার্তিক ১৪২৫

বাজারে প্রবেশের ফজিলত

শিহাব আহমেদ তুহিন ২:১৭ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ০৮, ২০১৮

print
বাজারে প্রবেশের ফজিলত

বাজার সম্পর্কে মুসলিম শরিফে বর্ণিত এক হাদিসে ইরশাদ হয়েছে, ‘মহান আল্লাহর কাছে ভূ-পৃষ্ঠের সর্বোত্তম জায়গা হলো মসজিদসমূহ আর সবচেয়ে নিকৃষ্ট জায়গা হলো বাজার।’

কারণ বাজার হলো এমন জায়গা, যেখানে মানুষ দুনিয়াবি কাজকর্মে লিপ্ত থাকে এবং গাফেল ও মূর্খরা আল্লাহর হুকুম ছেড়ে অযথা আড্ডা, খেল-তামাশা ও হায়াতের অপচয়ে লিপ্ত হয়।

জীবনের প্রয়োজনে বাজারে যেহেতু যেতেই হয় তাই আল্লাহর নেক বান্দা সেখানেও যেন স্বীয় প্রভুর জিকির থেকে গাফেল না থাকে তাই আল্লাহর রসুল (সা.) বিশাল ফজিলতের এক আমল এখানেও বলে দিয়ে গেছেন।

হজরত ওমর ইবনুল খাত্তাব (রা.) থেকে বর্ণিত, রসুলুল্লাহ (সা.) বলেন, ‘যে ব্যক্তি বাজারে প্রবেশ করে বলবে, ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াহ্দাহু লা শারিকা লাহু, লাহুল মুলকু ওয়া লাহুল হামদু য়্যুহ্য়ী ওয়া য়্যুমীতু ওয়া হুয়া হাইয়্যুন লা ইয়ামুতু, বিইয়াদিহিল খাইরু ওয়া হুয়া আলা কুল্লি শাইয়িন ক্বাদীর’।

আল্লাহতাআলা তার জন্য ১০ লাখ নেকি লিখবেন, ১০ লাখ (সগীরা) গুনাহ ক্ষমা করবেন এবং জান্নাতে তার জন্য একটি ঘর নির্মাণ করবেন।’
(সুনানে তিরমিযি, ইবনে মাজাহ, সহিহ তারগীব ওয়াত তারহীব, মুস্তাদরাকে হাকেম)।

বাজারে প্রবেশের দোয়া ; উচ্চারণ : লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াহ্দাহু লা শারিকা লাহু, লাহুল মুলকু ওয়া লাহুল হামদু য়্যুহ্য়ী ওয়া য়্যুমীতু ওয়া হুয়া হাইয়্যুন লা ইয়ামুতু, বিইয়াদিহিল খাইরু ওয়া হুয়া আলা কুল্লি শাইয়িন ক্বাদীর।

অর্থ : আল্লাহ ভিন্ন কেউ সত্য মা’বুদ নেই। তিনি একক, তার কোনো শরিক নেই। তারই জন্য সারা রাজত্ব এবং তারই নিমিত্তে সকল প্রশংসা। তিনিই জীবন দান করেন ও তিনিই মরণ দেন। তিনি চিরঞ্জীব, কখনই মৃত্যুবরণ করবেন না। তার হাতেই সব মঙ্গল। তিনিই সর্বোপরি ক্ষমতাবান।
রাব্বুল আমিন আমাদের আমল করার তাওফিক দান করুন। আমিন!