ভোট যুদ্ধে ছোট সতীন জয়ী

ঢাকা, সোমবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২২ | ১১ মাঘ ১৪২৮

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

ভোট যুদ্ধে ছোট সতীন জয়ী

পীরগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি
🕐 ৭:২২ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২০, ২০২১

ভোট যুদ্ধে ছোট সতীন জয়ী

রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার টুকুরিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সংরক্ষিত আসনে দুই সতীন অংশ নিয়ে ছোট সতীন সাজেদা বেগম (হেলিকপ্টার) প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন। বড় সতীন রাজিয়া বেগম বই প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে পরাজিত হয়েছেন ছোট সতীনের কাছে। তিনি অবশ্য ভোটযুদ্ধে দ্বিতীয় হয়েছেন।

স্থানীয়রা জানায়, দুধিয়াবাড়ী (বটপাড়া) গ্রামের মৃত্যু জফুর উদ্দিনের ছেলে নূর চানের দুই স্ত্রী। ছোট স্ত্রী সাজেদা বেগম বিয়ের পর থেকেই সুজারকুটি গ্রামে বাবার বাড়িতে থাকেন। স্বামীর বাড়িতে থাকেন বড় স্ত্রী রাজিয়া বেগম।

উল্লেখ্য, গত ১১ নভেম্বর ইউপি নির্বাচনে নূর চানের দ্বিতীয় স্ত্রীকে নির্বাচনে যেতে নিষেধ করলেও সে নির্বাচনে অংশ নেয়। এজন্য ক্ষেপে দিয়ে নূর চান তার বড় স্ত্রী রাজিয়া বেগমকেও নির্বাচনে বই মার্কা নিয়ে দাঁড় করিয়ে দেয়। কিন্তু ভোটযুদ্ধে স্বামী-স্ত্রী দুজনই ছোট সতীনের কাছে হেরে যান।

নবনির্বাচিত সংরক্ষিত আসনের সদস্য ছোট স্ত্রী সাজেদা বলেন, আমি বিগত নির্বাচনে অনেক ভোট পেয়েও পরাজিত হয়েছিলাম। এবার যদি ভোট না করে ঘরে বসে থাকি তাহলে আমার ভোটাররা কি বলবে? তিনি আরও বলেন, আমাকে ১, ২, ৩নং ওয়ার্ডের ভোটাররা ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন। আমি তাদের কাছে কৃতজ্ঞ। বড় স্ত্রী রাজিয়া বেগম বলেন নির্বাচন করতে হলে লেখাপড়ার দরকার আছে। টুকুরিয়া ইউনিয়নের ১, ২, ৩নং ওয়ার্ডের ভোটাররা আমাকে সদস্য হিসাবে দেখতে চায়, এজন্যই আমি বই মার্কা নিয়ে ভোট করেছি।

স্বামী নূর চান মিয়া বলেন, গত নির্বাচনে আমি ছোট স্ত্রীকে নির্বাচনে অংশ নিতে বলেছি এবং তার সঙ্গে থেকে ভোট করেছি। সে সময় পরাজিত হওয়ায় তাকে এবার নিষেধ করেছিলাম। বড় স্ত্রীর লেখাপড়া আছে এজন্য তাকে নির্বাচনে অংশ নিতে বলেছিলাম।

টুকুরিয়া গ্রামের ভোটার সোহেল রানা বলেন, আমাদের তিনটি ওয়ার্ডে পাঁচজন সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদপ্রার্থী হয়েছিল। ভোটারগণ নূর চানের দুই বউকে ব্যাপক ভোট দিয়েছে। এই ওয়ার্ডে সাজেদা ও রাজিয়া দু’সতীনের মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়েছে।

 

 

 
Electronic Paper