মেয়াদোত্তীর্ণের সাড়ে পাঁচ বছর পর তফসিল

ঢাকা, সোমবার, ৬ ডিসেম্বর ২০২১ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

নীলফামারী পৌরসভা

মেয়াদোত্তীর্ণের সাড়ে পাঁচ বছর পর তফসিল

মোশাররফ হোসেন, নীলফামারী
🕐 ১২:২৩ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৫, ২০২১

মেয়াদোত্তীর্ণের সাড়ে পাঁচ বছর পর তফসিল

মেয়াদোত্তীর্ণের পাঁচ বছরের অধিক সময় পর নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে নীলফামারী পৌরসভার। ২০১৬ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারিতে ওই পৌর পরিষদের মেয়াদ শেষ হয়। সীমানাসংক্রান্ত জটিলতার মামলায় আটকে ছিল নির্বাচন। সে মামলার অবসান ঘটায় বৃহস্পতিবার অষ্টম ধাপে ঘোষিত ১০টি পৌরসভার নির্বাচনী তফসিলের মধ্যে নাম রয়েছে নীলফামারী পৌরসভার।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ভোট অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৮ নভেম্বর। ২ নভেম্বর মনোনয়নপত্র জমার শেষ দিন। যাচাই-বাছাই ৪ নভেম্বর। প্রত্যাহারের শেষ দিন ১১ নভেম্বর।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার দফতর সূত্র মতে, ২০১১ সালের ১২ জানুয়ারি পৌরসভাটিতে সর্বশেষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচিত পরিষদ শপথ গ্রহণ করেন ওই সালের ২০ ফেব্রুয়ারি। সে মোতাবেক ২০১৬ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি মেয়াদ শেষ হয় নির্বাচিত পরিষদের। ২০১৫ সালে ৯টি ওয়ার্ডের পৌরসভাটিকে পার্শ্ববর্তী ইটাখোলা, কুন্দপুকুর, খোকসাবাড়ী ও টুপামারী ইউনিয়নের কিছু এলাকা নিয়ে সম্প্রসারণ করা হয়। 

এরপর ইটাখোলা ইউপি চেয়ারম্যান হাফিজুর রশীদ মঞ্জু, কুন্দপুকুর ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান আলী চৌধুরী এবং টুপামারী ইউপি সদস্য মো. সামসুদ্দোহা আপত্তি জানিয়ে উচ্চ আদালতে পৃথক তিনটি রিট পিটিশন দাখিল করেন। কুন্দপুকুর এবং টুপামারী ইউনিয়নের পিটিশন খারিজ হলে ২০১৯ সালে কুন্দপুকুর ইউপি চেয়ারম্যান আপিল করেন উচ্চ আদালতে। চলমান মামলাটি ২০২১ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর তিনি (কুন্দপুকুর ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান আলী চৌধুরী) প্রত্যাহার করেন। অপরদিকে ইটাখোলা ইউপি চেয়ারম্যান হাফিজুর রশিদ মঞ্জু চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে মামলা প্রত্যাহার করে নেন।

এ ব্যাপারে বৃহস্পতিবার বিকালে কথা বলা হলে ইটাখোলা ইউপি চেয়ারম্যান হাফিজুর রশিদ মঞ্জু বলেন, ‘পৌরসভার সীমানা বৃদ্ধি করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় গ্রেজেট হিসাবে পাস করে। আমার ইউনিয়নসহ পার্শ্ববর্তী কুন্দুপুকুর, খোকশাবাড়ী ও টুপামারী ইউনিয়নের একটি বৃহৎ অংশ চলে যায় পৌরসভায়। যার পরিপ্রেক্ষিতে আমি ২০১৫ সালের জানুয়ারি মাসে উচ্চ আদালতে একটি মামলা দায়ের করি। পরে এলাকায় আমি জরিপ করে দেখেছি এলাকাবাসী পৌরসভার সঙ্গে সংযুক্ত হতে আগ্রহী। যার পরিপ্রেক্ষিতে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে আমি মামলা প্রত্যাহার করে নিই।’

নীলফামারী সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আফতাবউজ্জামান বৃহস্পতিবার পৌরসভাটির নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘সীমানা জটিলতার মামলায় এতদিন পৌরসভাটিতে নির্বাচন আটকে ছিল। বাদী মামলা প্রত্যাহার করায় ওই জটিলতার অবসান ঘটে।’

তিনি জানান, একই কারণে মেয়াদোত্তীর্ণ ইটাখোলা, কুন্দপুকুর, খোকসাবাড়ী ইউপিতে নির্বাচন স্থগিত আছে। তবে টুপামারী ইউপির মামলা আগে নিষ্পত্তি হওয়ায় গত বছরের ২৯ অক্টোবর সেখানে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

 
Electronic Paper