মাছ চুরির অপবাদে শিশুকে বেঁধে নির্যাতন, আটক ১

ঢাকা, সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ১২ আশ্বিন ১৪২৮

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

মাছ চুরির অপবাদে শিশুকে বেঁধে নির্যাতন, আটক ১

পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি
🕐 ৭:৩৬ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৩, ২০২১

মাছ চুরির অপবাদে শিশুকে বেঁধে নির্যাতন, আটক ১

ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে মাছ চুরির অপবাদ দিয়ে রশি দিয়ে গাছের সাথে দুই পা উপরে বেঁধে মাথা নিচের দিকে ঝুলিয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় জুয়েল রানা (১০) নামে এক শিশুকে নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে।

গত শুক্রবার উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের তামলাই দিঘির পাড়ে এ ঘটনা ঘটনা ঘটে।

জুয়েল রানা একই উপজেলার মুনির উদ্দীনের ছেলে এবং মল্লিকপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্র।

এ ঘটনায় জুয়েলের বাবা মুনির উদ্দীন বাদী হয়ে মঙ্গলবার সকালে পীরগঞ্জ থানায় মল্লিকপুর তামলাই পুকুর এলাকার আব্দুল গফুরের ছেলে রমজান আলী ওরফে বাসু মিয়া নামে একজনকে আসামী করে মামলা করেন। দুপুরেই আসামীকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

মামলার অভিযোগে জানা যায়, জুয়েল রানা গত শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টা দিকে প্রতিবেশী আতিকুর, রফিক, রাশেদ, হান্নানের সাথে তামলাই দিঘিতে জেলেদের মাছ ধরা দেখতে যায়। মাছ ধরা শেষে জেলেরা পুকুর থেকে উঠে পড়েন। এ সময় আতিকুর, রফিক, রাশেদ, হান্নান জেলেদের জালের সাথে লেগে থাকা মাছ কুড়াতে গেলে মাছ ধরার কাছে সহায়তাকারী রমজান আলী ওরফে বাসু মিয়া তাদেরকে মাছ কুড়াতে দেখে ফেলেন। এক পর্যায়ে তাদেরকে ধাওয়া করলে জুয়েল রানাও তাদের সাথে পালিয়ে যাওয়ার সময় পুকুরের দক্ষিণ পশ্চিম পাড়ে জুয়েলকে আটক করে ফেলে রমজান আলী ওরফে বাসুমিয়া। এ সময় পাশেই ময়না বেগমের গরু বাঁধার রশি দিয়ে ইউক্লেলেপটাস গাছের সাথে দুই পা উপরে বেঁধে মাথা নিচের দিকে ঝুলিয়ে রেখে বাঁশের কঞ্চি দিয়ে জুয়েলের পায়ে পেটাতে থাকে। এ সময় জুয়েলের কান্নার শব্দ পেয়ে বাসু মিয়ার হাত থেকে জুয়েলকে উদ্ধার করে এবং মুঠোফনে নির্যাতনের দৃশ্য ধারণ করে।

জুয়েলের বাবা মুনির হোসেন জানান, নির্যাতনের ঘটনা আমার ছেলে আমাদের কাছে গোপন রেখেছিল। ওইদিন রাতেই তার জ্বর আসে এবং পায়ের পাতা ও গোড়ালী ফুলে যায়। তার ছেলেকে নির্যাতন ঘটনার কথা প্রত্যক্ষদর্শী জনৈক শরিফা, জান্নাতুল ও ময়নার মাধ্যমে গত সোমবার জানতে পারেন এবং মোবাইল ফোনে ধারণকৃত নির্যাতনের দৃশ্য দেখতে পান। ঘটনার কথা তিনি তার ছেলে জিজ্ঞেস করলে জুয়েল ওইদিনের মারপিটের কথা সকলের সামনে শিকার করেন।

ছেলের কাছে ঘটনার কথা শোনার পর তিনি রমজান আলী ওরফে বাসু মিয়াকে তার ছেলেকে নির্যাতনের কথা জিজ্ঞেস করতেই বাসু মিয়া উল্টো আমার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে এবং আমাকেও মারপিটের হুমকি দেয়। আমি বৃদ্ধ মানুষ উপায় না পেয়ে পীরগঞ্জ থানায় তাকে আসামী করে মামলা করেছি।

পীরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ প্রদীপ কুমার রায় জানান, মামলা হয়েছে। আসামীকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

 
Electronic Paper