রমেকের লোগোতে তামাক পাতা

ঢাকা, শনিবার, ৩০ মে ২০২০ | ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

রমেকের লোগোতে তামাক পাতা

রংপুর অফিস ৪:৪৬ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৭, ২০২০

print
রমেকের লোগোতে তামাক পাতা

আশ্চর্যজনক হলেও সত্যি, রংপুর মেডিকেল কলেজের (রমেক) লোগোতে মানব স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর তামাকের পাতার ব্যবহার করা হয়েছে। উত্তরাঞ্চলের স্বনামধন্য এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মনোগ্রামে তামাক পাতার ব্যবহারে রংপুরের সচেতন মহল চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। দ্রুত তারা মেডিকেল কলেজের লোগো থেকে তামাক পাতা তুলে দিয়ে লোগো পরিবর্তনের দাবি জানিয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ১৯৭০ সালে রংপুর মেডিকেল কলেজ প্রতিষ্ঠিত হয়। রংপুর অঞ্চলকে তামাকের জন্য বিখ্যাত এমনকি তামাককে অর্থকরি ফসল হিসেবে বিবেচনা করে রংপুর মেডিকেল কলেজের লোগোতে তামাক পাতা ব্যবহার করা হয়েছে বলে বিশিষ্টজনরা জানিয়েছেন। তবে রংপুরবাসী মনে করেন তামাক আসলে অর্থকরি কোনো ফসল নয় বরং এটি অত্যন্ত ক্ষতিকর একটি পণ্য। তাই তারা রংপুরে তামাক চাষ বন্ধের পাশাপাশি মেডিকেল কলেজের লোগো থেকে তামাক পাতা অপসারণের দাবি জানিয়েছেন।

বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএম) রংপুর জেলা শাখার সভাপতি ডা. মো. দেলোয়ার হোসেন বলেন, এক সময় তামাককে রংপুরের ঐতিহ্য হিসেবে এখানকার মানুষ মনে করতো। কিন্তু এখন আর সেদিন নেই। তাই রংপুর মেডিকেল কলেজের মনোগ্রামে তামাকের পাতার পরিবর্তে রংপুরের শতরঞ্জি শিল্পের ডিজাইন ব্যবহার করা যেতে পারে।

রংপুর মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. একেএম নুরুন্নবী। তিনি বলেন, এক সময় রংপুর তামাকের জন্য বিখ্যাত ছিল। এটিকে এই অঞ্চলের অর্থকরি ফসল এমনকি ঐতিহ্য হিসেবে ভাবা হতো।

তাই এটির প্রতি সম্মান প্রদর্শন করে হয়তো ডিজাইনার তামাকের পাতার ব্যবহার করেছেন। তবে বাংলাদেশে তামাকের দিন শেষ। তাই আমরা রংপুর মেডিকেল কলেজের লোগো থেকে তামাকের পাতা বাদ দেওয়ার বিষয়টি ভাবছি। দ্রুত একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় বিষয়টি উত্থাপন করা হবে। তামাক পাতার পরিবর্তে জাতীয় ঐতিহ্য বহন করে এমন কোনো প্রতীক সংযুক্ত করার বিষয়ে প্রস্তাব করা হবে।