উলিপুরে দুই এমপির দ্বন্দ্বে বিভক্ত আওয়ামী লীগ

ঢাকা, বুধবার, ৮ এপ্রিল ২০২০ | ২৫ চৈত্র ১৪২৬

উলিপুরে দুই এমপির দ্বন্দ্বে বিভক্ত আওয়ামী লীগ

উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি ১:৪১ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২০

print
উলিপুরে দুই এমপির দ্বন্দ্বে বিভক্ত আওয়ামী লীগ

কুড়িগ্রামের উলিপুরে ক্ষমতাসীন দলের সাবেক ও বর্তমান সংসদ সদস্যের দ্বন্দ্বের কারণে বিভক্ত হয়েছে পড়েছেন দলীয় নেতাকর্মীরা। দুই গ্রুপের পাল্টাপাল্টি অভিযোগে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে মাঠের রাজনীতি। এক সপ্তাহের ব্যবধানে তিনটি সংবাদ সম্মেলন করে একে অপরের বিরুদ্ধে দুর্নীতির নানা অভিযোগ তুলে ধরেন। এতে করে উভয় পক্ষের নেতাকর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা বেড়েই চলছে।

আত্মহত্যার হুমকি দিয়ে আলোচনায় আসা সাবেক এমপি আমজাদ হোসেন তালুকদার গতকাল শুক্রবার দুপুরে নিজ বাস ভবনে সংবাদ সম্মেলন করে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও উপজেলা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যাবহারসহ বিভিন্ন দুর্নীতির অভিযোগ তুলে ধরেন। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘১৯৭৫ পরবর্তী সামরিক শাসনবিরোধী আন্দোলনসহ সকল গণতান্ত্রিক আন্দোলনে সামনে থেকে লড়াই করেছি। ওই সময় দলের নেতাকর্মী ও আমার পরিবারের উপর জুলুমসহ নানাভাবে অত্যাচার করা হয়েছে। বর্তমানে যারা এমপি ও উপজেলা চেয়ারম্যান হয়েছেন তারা সেই সময় কোথায় ছিলেন। দূর্দিনের ত্যাগী নেতাকর্মীদের এখন অবমূল্যায়ন করা হচ্ছে। সর্বত্রই অন্যায়ভাবে ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে দলের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করা হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘বর্তমান এমপি অধ্যাপক এম এ মতিনের আপন বড় ভাই আব্দুল করিম রাজাকার। এমপি নিজেই এক সময় ছাত্রদলের ক্যাডার ছিলেন। ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর বর্তমান এমপি বঙ্গবন্ধুর নামে টিচার্স ট্রেনিং কলেজ খুলেছিলেন। ওই সময় আমি কলেজের গভর্নিং বডির সদস্য ছিলাম। পরবর্তীতে ২০০১ সালে বিএনপি-জামায়াত জোট ক্ষমতায় আসলে উনি (এমপি) বঙ্গবন্ধুর নাম বাদ দিয়ে ওই প্রতিষ্ঠান নিজের নামে (এমএ মতিন কারীগরি ও কৃষি কলেজ) খুলে বসলেন। যারা বঙ্গবন্ধুর নামের সঙ্গে প্রতারণা করতে পারেন, তারা কি করে আওয়ামী লীগ হতে পারে। এমপি সরকারের সকল উন্নয়ন কর্মকা- থেকে কমিশন নিচ্ছেন।’

গত ২৫ ফেব্রুয়ারি সংবাদ সম্মেলন করে তার বিরুদ্ধে মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন অভিযোগ উত্থাপন করা হয়েছে দাবি করে আমজাদ হোসেন তালুকদার বলেন, এটি দলের ত্যাগী নেতাকর্মীরা প্রত্যাখ্যান করেছেন। যেখানে জনগণ থাকে সেখানে উপজেলা চেয়ারম্যান মন্টু ও এমপি মতিন থাকেন না।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মতি শিউলী, সিনিয়র সহ-সভাপতি সোলায়মান সরদার বাদশা, উপজেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টাম-লীর সদস্য বাবর আলী প্রমুখ।

এর আগে, গত ২১ ফেব্রুয়ারি নিজ বাসভবনে সংবাদ সম্মেলন করে সাবেক এমপি আমজাদ হোসেন তালুকদার দল ও রাজনীতিতে অবমূল্যায়নের শিকার হয়ে আত্মহত্যার হুমকি দিয়ে আলোচনায় আসেন। পরে ২৫ ফেব্রুয়ারি উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ তুলে ধরেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম হোসেন মন্টুসহ দলের একাংশের নেতাকর্মীরা।