আলুতে লাভবান চাষি

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১৩ ফাল্গুন ১৪২৬

আলুতে লাভবান চাষি

কাহারোল (দিনাজপুর) প্রতিনিধি ৬:৫২ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৮, ২০২০

print
আলুতে লাভবান চাষি

দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলায় আগাম আলু চাষ করেছেন কৃষক। তবে দাম নিয়ে প্রথম দিকে শঙ্কা থাকলেও সেটা এখন আর নেই। বাজারে কাক্সিক্ষত মূল্যই পাচ্ছেন কৃষক। গত তিন বছরের তুলনায় এ বছর আলুর মূল্য বেশি পাচ্ছেন উপজেলার চাষিরা।

গত ১৬ জানুয়ারি কাহারোল হাটে দেশি জাতের আলু পাইকারি প্রতি মণ ১১০০ টাকা, গেনুলা ও কাঠিলাল জাতের আলু প্রতি মণ ৮৫০ থেকে ৯০০ টাকা মূল্যে বিক্রি হয়েছে। গত বছর এ সময় কাহারোলে প্রতিটি পাইকারি বাজারে দেশি আলুর মূল্য ছিল সর্বোচ্চ ৬০০ টাকা এবং কাটিলাল আলু সর্বোচ্চ ৫০০ টাকা মূল্যে বিক্রি হয়েছিল। এবার দ্বিগুণ মূল্য পেয়েছেন আলু চাষিরা।

আলু বিক্রেতা সুরেশ চন্দ্র রায় জানান, এক বিঘা জমিতে আলু চাষ করতে খরচ হয়েছে ১৬ হাজার টাকার মত। এবার এক বিঘার আলু বিক্রি করছি ৫০-৬০ হাজার টাকার মত। উৎপাদন খরচ বাদ দিয়ে ৪০ হাজার টাকার মত লাভও হয়েছে।

ক্রেতা বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বর্তমান বাজারে আলুর চাহিদা রয়েছে প্রচুর। বাজারে সবজির সরবরাহ ঘাটতি রয়েছে, সবজির জোগানে ঘাটতির কারণে চাহিদা বেড়েছে আলুর। ফলে আলুর বাজারে এবার চাঙ্গা ভাব বিরাজ করছে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আবু জাফর মো. সাদেক জানান, চলতি মৌসুমে উপজেলায় দুই হাজার ৫৫০ হেক্টর জমিতে আলু চাষাবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এর মধ্যে বেশকিছু জমিতে আগাম জাতের আলু চাষিরা তুলে বাজারে বিক্রি করেছেন। আগাম আলু চাষ খুব লাভজনক বটে।