ধুনটে স্বেচ্ছাশ্রমে সাঁকো নির্মাণ

ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯ | ৮ কার্তিক ১৪২৬

ধুনটে স্বেচ্ছাশ্রমে সাঁকো নির্মাণ

ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি ৭:৩০ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০১৯

print
ধুনটে স্বেচ্ছাশ্রমে সাঁকো নির্মাণ

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় মথুরাপুর ইউনিয়নের কুড়িগাতি গ্রামে সরকারি সড়কের কচুয়া বিলের উপর স্বেচ্ছাশ্রমে বাঁশের সাঁকো নির্মাণ করা হয়েছে। প্রায় ৩০০ ফুট দীর্ঘ সাঁকোটির নির্মাণ কাজের উদ্যোক্তা মথুরাপুর ইউনিয়ন পরিষদের মহিলা সদস্য আছিয়া খাতুন। এছাড়াও আশপাশের গ্রামের লোকজন বাঁশ দিয়ে সহায়তা করেছেন। গতকাল সাঁকোটির নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কুড়িগাতী গ্রামের চহের চড়া থেকে কুড়িগাতী দক্ষিন পাড়া পর্যন্ত প্রায় ২ কিলোমিটার কাচা সড়কটি ওই অঞ্চলের ১৮টি গ্রামের একমাত্র সংক্ষিপ্ত সড়ক। কাচা সড়কটি কুড়িগাতী গ্রামের মাঝ দিয়ে আশপাশের গ্রামের সঙ্গে সংযুক্ত হয়েছে। গ্রামগুলো হলো কুড়িগাতী, গোবিন্দপুর, উজাল শিং, শিমুলকান্দি, জোলাগাতী, ছাতিয়ানী, হোসেনপুর, উলুরচাপড়, বগা, রান্ডিলা, মল্লিকচান, কয়ড়া, কল্লাবাড়ি, ঝাপড়া, বুলাকীপুর, গুনারগাতী, আবুদিয়া ও ধানগড়া। প্রতিদিন হাজারো মানুষ ওই রাস্তা দিয়ে কচুয়া বিলের জলমাড়িয়ে চলাচল করে। এতে গ্রামবাসীকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে।

এছাড়া ওই সড়কটি দিয়ে গ্রামবাসী হাট বাজারে যাতায়াত করে। এছাড়াও স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা কম সময়ে তাদের বিদ্যালয়ে পৌঁছাতে পারে। গ্রামবাসী সরকারি বিভিন্ন দপ্তরে আবেদন করেও কোন ব্রিজ, কালভার্ট কিংবা সাঁকোর বরাদ্দ পায়নি।

অবশেষে মথুরাপুর ইউনিয়নের ৪,৫,৬ নং ওয়ার্ডের মহিলা সদস্য আছিয়া খাতুন আর্থিক সহযোগিতা দিয়ে কচুয়া বিলের উপর সাঁকো নির্মাণের উদ্যোগ নেন। তাকে আশপাশের গ্রামবাসী বাঁশ দিয়ে সহযোগিতা করেছেন। এই কাজের মাধ্যমে এলাকার হাজারো মানুষকে দুর্ভোগের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছেন।

সাঁকো নির্মাণ কাজের উদ্যোক্তা আছিয়া খাতুন বলেন, মানুষের সেবা করা জন্য মাঠে নেমেছি। বিভিন্ন দপ্তরে ঘুরে ঘুরে কোন কাজ হয়নি। ফলে নিজের সামান্য আয় থেকেই সাঁকো নির্মাণ কাজ শুরু করি। আমার এই কাজ দেখে আশপাশের গ্রামবাসী সহযোগীতার হাত বাড়িয়েছেন। টেকসই এই সাঁকো নির্মাণে ব্যয় হয়েছে প্রায় ৮ হাজার টাকা।

স্থানীয় মকবুল, আজিজুর ও ফারুক বলেন, কচুয়া বিলের উপর ব্রিজ না থাকায় যাতায়তে চরম দুর্ভোগে পরতে হচ্ছিল। এখন স্বেচ্ছাশ্রমে বাঁশের সাঁকো নির্মাণ করার এলাকার হাজারো মানুষকে দুর্ভোগের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছেন। ধুনট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রাজিয়া সুলতানা বলেন, নিজস্ব কমিউনিটিকে সম্পৃক্ত করে সমস্যা সমাধানের একটি অনন্য উদাহরণ সাঁকো নির্মানের এই কাজটি।