১৪ বছরেও হয়নি চালু সান্তাহার স্বাস্থ্যকেন্দ্র

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৯ | ৮ কার্তিক ১৪২৬

১৪ বছরেও হয়নি চালু সান্তাহার স্বাস্থ্যকেন্দ্র

আবু মুত্তালিব মতি, আদমদীঘি (বগুড়া) ৬:১৯ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৯

print
১৪ বছরেও হয়নি চালু  সান্তাহার স্বাস্থ্যকেন্দ্র

বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহারের ২০শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালটি ১৪ বছরেও হয়নি চালু। বর্তমানে হাসপাতালটির আশেপাশে আগাছায় ভরপুর ও মাদকসেবীদের আখড়ায় পরিণত হচ্ছে। কবে নাগাদ হাসপাতালটি চালু হবে তারও কোন কুলকিনারা নেই কর্তৃপক্ষের কাছে। হাসপাতালটি চালু না হওয়ায় স্বাস্থ্যসেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন এলাকাবাসী আবার নষ্ট হতে চলেছে এই মূল্যবান সম্পদ।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার পৌর শহরবাসীর দীর্ঘ দিনের দাবি ও কাঙ্খিত সান্তাহার পৌরশহরে একটি হাসপাতাল নির্মাণ করা। এই দাবির প্রেক্ষিতে ২০০৫ সালে সি.এম.এম.ইউ এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে ও তত্ত্বাবধানে প্রায় ৩ কোটি ৩৩ লাখ ১২ হাজার টাকা ব্যয়ে সান্তাহার শহরের রথবাড়ি এলাকায় ২০শয্যা বিশিষ্ট একটি হাসপাতাল নির্মাণ কাজ শুরু করা হয়।

এই হাসপাতালটির প্রায় ৮০ ভাগ নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হওয়ার পর হঠাৎ করে বাঁকি অংশের কাজ বন্ধ হয়ে যায়। এমতাবস্থায় ২০০৬ সালের ২২অক্টোবর ব্যাপক আয়োজনের মধ্য দিয়ে হাসপাতালটি উদ্বোধন করা হয়।

এরপর দীর্ঘ ১৪ বছর হয়ে গেল অভিভাবকহীন ভাবে দাঁড়িয়ে রয়েছে হাসপাতালটি হয়নি চালু। আদমদীঘি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ড. শহিদুল্লাহ দেওয়ান জানান, সান্তাহার একটি পৌরসভা ও ৬টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত আদমদীঘি উপজেলা।

এই আদমদীঘি উপজেলার সদরে ৫০ শয্যা বিশিষ্ট একটি হাসপাতাল রয়েছে। সেখানে উপজেলাবাসীসহ আশেপাশের শতশত রোগী প্রতিদিন নিচ্ছেন সেবা।