সারিন্দার সুর তুলে সংসার চলে সুনীলের

ঢাকা, সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯ | ৪ ভাদ্র ১৪২৬

সারিন্দার সুর তুলে সংসার চলে সুনীলের

ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি ২:২১ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১০, ২০১৯

print
সারিন্দার সুর তুলে সংসার চলে সুনীলের

বিশ বছর ধরে সারিন্দার সুরে কোকিল কণ্ঠে গান পরিবেশন করে সংসার চালিয়ে যাচ্ছেন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী সুনীল চন্দ্র রায় (৩৭)। তার বাড়ি কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলা নাওডাঙ্গা ইউনিয়নের কিষামত শিমুলবাড়ী গ্রামে।

বাবার সম্পদ বলতে মাত্র ৪ শতক জমির ওপর বাড়িতে একটি টিনের চালায় ছোট ভাইসহ মা রানী রায় মানুষের বাড়িতে কাজ-কাম করে জীবন-জীবিকা নির্বাহ করছে। দৃষ্টি প্রতিবন্ধী সুনীল ৮ বছর ধরে ফুলবাড়ী ইউনিয়নের মামা মনোরঞ্জনের বাড়িতে থাকে। মামার বাড়িতে থেকে স্ত্রী ও ৯ বছরের একটি ছোট ছেলে নিয়ে তার সংসার। সুনীলের সম্বল বলতে প্রতিবন্ধী ভাতা ও তার সুরেলা কণ্ঠ।

সুনীল চন্দ্র রায় জানান, তার বয়স যখন পাঁচ বছর তখন তার টাইফয়েড জ্বর হয়। টাইফয়েড জ্বরের তীব্রতা এত বেশি ছিল যে তিনি দৃষ্টিশক্তি হারিয়ে ফেলেন। পরে তার পরিবার বিভিন্ন সময়ে তাকে লালমনিরহাট, কুড়িগ্রাম ও রংপুরে চিকিৎসা করার পরও সুনীলের দৃষ্টিশক্তি আর ফিরে আসেনি। দৃষ্টিশক্তি না থাকায় সুনীল সম্পূর্ণরূপে পরনির্ভরশীল হয়ে পড়েন। তারপর তিনি পনের বছর বয়সে জীবন-জীবিকার তাগিদে হাতে তুলে নেন শর আর সারিন্দা।

উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজার ও গ্রামগঞ্জে ঘুরে লোকজনের সমাগমে সারিন্দা বাজিয়ে ভাওয়াইয়া, লালনগীতি, পল্লীগীতিসহ বিভিন্ন গান পরিবেশনের মাধ্যমে জীবিকা নির্বাহ করেন।