বেহাল সড়কে দুর্ভোগ

ঢাকা, বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯ | ৬ ভাদ্র ১৪২৬

বেহাল সড়কে দুর্ভোগ

রাজারহাট (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি ৫:১৭ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৯, ২০১৯

print
বেহাল সড়কে দুর্ভোগ

কুড়িগ্রামের রাজারহাট-সেলিমনগর ৮কিলোমিটার সড়কে শত শত খানা-খন্দের সৃষ্টি হওয়ায় চরম জনদূর্ভোগের পড়েছেন এলাকাবাসী। এতে করে প্রতিনিয়ত ঘটছে ছোট- বড় দূর্ঘটনা। এ ছাড়া ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে যানবাহন। দীর্ঘদিন ধরে সড়কটির সংস্কার কাজের টেন্ডার কার্যক্রম ঝুলে এ অচলাবস্থা সৃষ্ঠি হয়ে বলে অভিযোগ করেন এলাকাবাসী।

জানা যায়, রাজারহাট থেকে সেলিমনগর খেদাবাগ সড়কের দুরত্ব ৮ কিলোমিটার। এ সড়কের পাশে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও উত্তরাঞ্চলের একমাত্র কৃষি আবহাওয়া অফিস রয়েছে। কুড়িগ্রাম-চিলমারী-উলিপুর হয়ে রাজারহাট-তিস্তা ব্যস্ততম মহাসড়কের উপর দিয়ে যানবাহন চলাচল করে। কিন্তু সম্প্রতি বন্যায় তিস্তা বাজারের পার্শ্ববর্তী একটি ব্রিজ নির্মাণ করার পর সংযোগ সড়কে ব্রিজের দু’পাশে মাটি ভরাট না করায় পানি প্রবাহিত হলে রাজারহাট-তিস্তা যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ফলে রাজারহাট-সেলিমনগর সড়কটি ব্যস্ততম হয়ে পড়ে।

গত ৩ বছর আগে এলজিইডি বিভাগের আওতায় সড়কটি মেরামত ও সংস্কার করা হলেও বছর না ঘুরতেই সড়কটি চলাচলের অনুপযোগী হয়ে যায়। এমনকি দীর্ঘদিন ধরে ওই সড়কের কার্পেটিংসহ মাটি উঠে গিয়ে বেশ কয়েকটি বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে।

এছাড়া শতশত খানা-খন্দ হওয়ায় যানচলাচলে চরম ভোগান্তি পোহাতে হয় চালক ও যাত্রীদের। প্রতিদিনই ছোট-খাট দূর্ঘটনা ঘটছে। বিষয়টি স্থানীয় কর্তৃপক্ষের নজরে আসলেও খামখেয়ালিপনার কারণে এক বছরেও সড়কটি সংষ্কার হয়নি।

শিক্ষার্থী তারিন ও রেজওয়ানা জানান, এ সড়কে এতো গর্ত যে স্কুলে যাওয়ার পথে পোশাকে কাঁদা লেগে নষ্ট হয়ে যায়। আমাদের দাবি দ্রুত সড়কটি সংস্কার করা হোক।

রাজারহাট উপজেলা নবাগত প্রকৌশলী আবু তাহের শফিউল্লাহ্ জানান, রাজারহাট- সেলিম নগর সড়কটির সংস্কার কাজের টেন্ডার কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন। টেন্ডার হয়ে আসলে সংষ্কার দ্রুত করা হবে।