ওষুধের দোকান বন্ধ করে ধর্মঘট

ঢাকা, সোমবার, ২২ জুলাই ২০১৯ | ৬ শ্রাবণ ১৪২৬

ওষুধের দোকান বন্ধ করে ধর্মঘট

দুপচাঁচিয়া (বগুড়া) প্রতিনিধি ৮:৩৮ অপরাহ্ণ, জুলাই ০৮, ২০১৯

print
ওষুধের দোকান বন্ধ করে ধর্মঘট

বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলায় ওষুধের দোকানিরা সোমবার সকাল ১০টা থেকে ১২টা পর্যন্ত দোকান বন্ধ রেখে ধর্মঘট পালন করেছে। এ সময় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পাশে একটি ওষুধের দোকান জরুরী রোগীদের জন্য খুলে রেখে অন্য সয ওষুধের দোকান বন্ধ করে রাখেন। বাংলাদেশ কেমিস্ট অ্যান্ড ড্রাগিস্ট সমিতি দুপচাঁচিয়া উপজেলা শাখার ডাকে এ ধর্মঘট পালন করা হয়।

দোকানিদের অভিযোগ, গত ৬ জুলাই দৈনিক করতোয়া পত্রিকায় ‘দুপচাঁচিয়ায় মেয়াদ উত্তীর্ণ ও প্রেসক্রিপশন ছাড়াই অবাধে ওষুধ বিক্রি করা হচ্ছে’ এমন সংবাদ প্রকাশ করা হয় এবং সংবাদে অনেকের ড্রাগ লাইসেন্স নেই ও দোকানিরা প্রেসক্রিপশন ছাড়াই রোগীর কথা শুনে নিম্নমানের ওষুধ দিয়ে অধিক মুনাফা লুটে নিচ্ছে উল্লেখ করা হয়। এরই প্রতিবাদে ওষুধের দোকানিরা ধর্মঘট পালন এবং সিও অফিস বাসস্ট্যান্ড এলাকায় সমিতির কার্যালয়ে প্রতিবাদ সভা করেন।

সমিতির উপজেলা শাখার সভাপতি আবু বকর ছিদ্দিকের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন, সমিতির উপদেষ্টা পল্লি চিকিৎসক জহুরুল ইসলাম পুটু, সহসভাপতি উজ্জ্বল চক্রবর্তী শিশির প্রমুখ।

সমিতির সভাপতি আবু বক্কর ছিদ্দিক অভিযোগ করে বলেন, সংবাদটি মিথ্যা ও উদ্দেশ্য প্রনোদিত। ইতিপূর্বে সমিতির সদস্যদের নিয়ে এক সভা করে মেয়াদ উত্তীর্ণ ওষুধ দোকানে না রাখা, ব্যবস্থাপত্র ছাড়া ওষুধ বিক্রি না করা এবং ড্রাক সুপারের নির্দেশ মেনে চলার জন্য সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছিল এবং এ সংক্রান্তে উপজেলায় মাইকিংয়ের মাধ্যমে সকলকে অবগতও করা হয়েছিল। সেই সিদ্ধান্ত মোতাবেই ব্যবসায়ীরা ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে।