বজ্রপাতে উত্তরাঞ্চলে সাতজনের মৃত্যু

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯ | ২৯ আশ্বিন ১৪২৬

বজ্রপাতে উত্তরাঞ্চলে সাতজনের মৃত্যু

ডেস্ক রিপোর্ট ১২:১০ অপরাহ্ণ, জুন ২৭, ২০১৯

print
বজ্রপাতে উত্তরাঞ্চলে সাতজনের মৃত্যু

বজ্রপাতের শিকার হয়ে দেশের উত্তরাঞ্চলে সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। গত মঙ্গলবার রাত ও গতকাল বুধবার এসব দুর্ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে দিনাজপুরে তিনজন, নীলফামারীতে দুজন, রংপুরের পীরগঞ্জে একজন ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে একজন রয়েছেন।

প্রতিনিধিদের পাঠানো বিস্তারিত খবর দিনাজপুরে এক নারীসহ তিনজনের মৃত্যু : দিনাজপুরের বিরলে ও বোচাগঞ্জে পৃথক স্থানে মুষলধারে বৃষ্টির সঙ্গে বজ্রপাতে এক নারীসহ তিনজনের মৃত্যু হয়েছে।

এ ঘটনায় আরও একজন গুরুতর আহত হন। গত মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে বিরল উপজেলার উত্তর মাধবপুর বাজারে ও বোচাগঞ্জ উপজেলার নাফানগর ইউনিয়নের গোধাপুকুরস্থলে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন বিরল উপজেলার উত্তর মাধবপুর গ্রামের জীবন চন্দ্র রায়ের ছেলে সার্ণিক চন্দ্র রায়, হরিশচন্দ্রপুর গ্রামের সুমন্ত চন্দ্র শীল ও বোচাগঞ্জ উপজেলার গোধাপুকুর গ্রামের সাইফুল ইসলামের স্ত্রী মাহমুদা খাতুন। বজ্রপাতে আহত হন নুচুগ্রামের রঞ্জিত চন্দ্র রায়।

বিরল থানার ওসি এটিএম গোলাম রসুল জানান, রাতে হঠাৎ বৃষ্টি শুরু হলে উপজেলার উত্তর মাধবপুর বাজারের পার্শ্বে একটি দোকানে আশ্রয় নেন কয়েকজন। এ সময় বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলেই সার্ণিক চন্দ্র রায় ও সুমন্ত চন্দ্র শীলের মৃত্যু হয়। এ সময় আহত হন রঞ্জিত চন্দ্র রায়। বোচাগঞ্জ থানার ওসি আবদুর রব জানান, রাত ৮টায় বাড়ির পাশে চায়ের নিজ দোকানে কাজ করছিলেন মাহমুদা খাতুন। এ সময় বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলে মাহমুদা খাতুনের মৃত্যু হয়।

পীরগাছায় কৃষকের মৃত্যু : রংপুরের পীরগাছায় বজ্রপাতে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বুধবার দুপুরে উপজেলা তাম্বুলপুর ইউনিয়নের রহমতের চর গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ওই গ্রামের মৃত হাবিবুর রহমানের ছেলে মকবুল হোসেন দুপুরে জমিতে কাজ করার সময় বজ্রপাতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

নীলফামারীতে বজ্রপাতে নিহত ২ : নীলফামারী জেলার ডোমার ও ডিমলা উপজেলায় বজ্রপাতে দুজন নিহত হয়েছেন। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বজ্রপাতে নিহতরা হলেন আয়শা বেগম ও আব্দুল আজিজ। আয়শা বেগম ডোমার উপজেলার পাঙ্গামটুকপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ মটকপুর গ্রামের মান্নাত হোসেনের স্ত্রী এবং আবদুল আজিজ লালমনীরহাট জেলার পাটগ্রামের বাসিন্দা।
আবদুল আজিজ ডিমলা উপজেলা ঝুনাগাছ চাপানী ইউনিয়নের দক্ষিণ সোনাখুলি গ্রামে তার জামাই বাড়িতে বেড়াতে এসে বজ্রপাতের ঘটনায় নিহত হন। ডোমার উপজেলার পাঙ্গামটকপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এমদাদুল হক জানান, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বাড়ির পাশের মাঠ থেকে গরু আনতে গিয়ে বজ্রপাতে ঘটনাস্থলে নিহত হন আয়শা বেগম।

অপরদিকে ডিমলা ঝুনাগাছ চাপানী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আমিনুর রহমান জানান, লালমনীরহাট জেলার পাটগ্রামের জগতবাড়ি ইউনিয়নের বাসিন্দা আব্দুল আজিজ ঝুনাগাছ চাপানী ইউনিয়নের দক্ষিণ সোনাখুলি গ্রামে তার জামাই শাহিনুর ইসলামের বাড়িতে বেড়াতে আসেন। সেখান থেকে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তিনি পার্শ্ববর্তী আরেক আত্মীয় বাড়িতে বেড়াতে যাচ্ছিলেন। এ সময় একই ইউনিয়নের দক্ষিণ জটিয়াপাড়া এলাকার রাস্তায় বজ্রপাতের ঘটনায় ঘটনাস্থলে নিহত হন তিনি।

শিবগঞ্জে বজ্রপাতে শ্রমিক নিহত : চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে আম কুড়াতে গিয়ে বজ্রপাতে আবুল কালাম নামে একজন নিহত হয়েছেন। গতকাল বুধবার বিকালে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আবুল কালাম উপজেলার পাকা ইউনিয়নের বোগলাউড়ির মুসলেম উদ্দিনের ছেলে।