ছয় মাসেই ড্রেনে ধস

ঢাকা, বুধবার, ১৯ জুন ২০১৯ | ৫ আষাঢ় ১৪২৬

হাতীবান্ধায় এলজিএসপি প্রকল্প

ছয় মাসেই ড্রেনে ধস

হাতীবান্ধা (লালমনিরহাট) প্রতিনিধি ৯:০৪ অপরাহ্ণ, মে ৩০, ২০১৯

print
ছয় মাসেই ড্রেনে ধস

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় নির্মাণের ছয় মাস যেতে না যেতেই ধসে পড়েছে এলজিএসপি-৩-এর বাস্তবায়িত পানি নিষ্কাশনের জন্য নির্মিত জনগুরুত্বপূর্ণ একটি ড্রেন। এলাকাবাসীর অভিযোগ, নির্মাণকাজে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করায় ড্রেনটি ভেঙে পড়েছে। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন স্থানীয় লোকজন।

জানা গেছে, হাতীবান্ধা বন্দরসহ পার্শবর্তী এলাকা জলাবদ্ধতা থেকে রক্ষার জন্য রেলওয়ে প্ল্যাটফর্মের পূর্ব পাশে ৭৭ মিটারের ওই ড্রেনটি সম্প্রতি নির্মাণ করা হয়। ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ৪ লাখ ১৮ হাজার টাকা ব্যয়ে লোকাল গভর্ন্যান্স সাপোর্ট প্রজেক্ট-৩-এর (এলজিএসপি) আওতায় কাজটি বাস্তবায়ন করেন উপজেলার সিঙ্গিমারী ইউনিয়ন পরিষদ।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় ও সিঙ্গিমারী ইউনিয়ন পরিষদ সূত্রে জানা গেছে, জনগুরুত্বপূর্ণ বিবেচনায় এলজিএসপি-৩-এর আওতায় ৪ লাখ ১৮ হাজার টাকা ব্যয়ে ড্রেনটি নির্মাণ করা হয়েছিল। কাজটির প্রকল্প চেয়ারম্যান ছিলেন সিঙ্গিমারী ইউনিয়ন পরিষদের ৬নং ওয়ার্ড সদস্য মজিবর রহমান।

স্থানীয়রা জানান, গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময় ড্রেনটি নির্মাণ করা হয়। কিন্তু ছয় মাস যেতে না যেতেই সামান্য বৃষ্টির পানিতেই গত সোমবার ড্রেনটির প্রায় ৪০ মিটার ধসে পড়েছে। নির্মাণকাজে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন তারা।

প্রকল্প চেয়ারম্যান ইউপি সদস্য মজিবর রহমান জানান, আবহাওয়া ভালো হলেই ড্রেনের ধসে যাওয়া অংশটি মেরামত করা হবে। সিঙ্গিমারী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মনোয়ার হোসেন দুলু জানান, সম্প্রতি ঘন বৃষ্টির কারণে ড্রেনটি ভেঙে গেছে। সমস্যা নেই ওই প্রজেক্টের জামানতের টাকা এখনো জমা আছে। সংশ্লিষ্ট প্রকল্প চেয়ারম্যানের সঙ্গে কথা হয়েছে তারা ড্রেনটি মেরামত করে দেবেন।