সংবাদ প্রকাশের পর সচল স্টেশনের সিসি ক্যামেরাগুলো

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২ মার্চ ২০২১ | ১৮ ফাল্গুন ১৪২৭

সংবাদ প্রকাশের পর সচল স্টেশনের সিসি ক্যামেরাগুলো

নওগাঁ প্রতিনিধি ৯:৪৮ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৮, ২০২১

print
সংবাদ প্রকাশের পর সচল স্টেশনের সিসি ক্যামেরাগুলো

অবশেষে সচল করা হলো উত্তরবঙ্গের ঐতিহ্যবাহী রেলওয়ে জংশন স্টেশন সান্তাহারের সিসি ক্যামেরাগুলো। সম্প্রতি ‘সান্তাহার জংশন রেলওয়ে স্টেশনের অধিকাংশ সিসি ক্যামেরা নষ্ট’ এমন শিরোনামে দেশের জাতীয়, আঞ্চলিক ও অনলাইন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হলে বিষয়টি নজরে আসে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের। এরপর সম্প্রতি সচল করা হয় স্টেশনের অচল হওয়া সিসি ক্যামেরাগুলো।

দেশের উত্তরাঞ্চলের ঐতিহ্যবাহী রেলওয়ে জংশন স্টেশন বগুড়ার সান্তাহার জংশন রেলওয়ে স্টেশন। ১৮৮০ সালে এই স্টেশনটি স্থাপিত হলেও ১৯০০ সালের দিকে নির্মাণ করা হয় স্টেশনের সকল অবকাঠামো। এরপর থেকে সেবা দিয়ে আসছে স্টেশনটি। কিন্তু অন্যান্য স্থানের স্টেশনগুলোতে অবকাঠামোগত সব কিছুতেই আধুনিকতার ছোয়া লাগলেও সান্তাহার স্টেশনের অবকাঠামোতে এখন পর্যন্ত কোন আধুনিকতার কোন ছোয়াই স্পর্শ করেনি।

এমনকি স্টেশনের কিছু জনগুরুত্বপূর্ণ স্থানসহ পুরো স্টেশনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদারের লক্ষ্যে সিসি ক্যামেরার আওতায় আনা হয়। স্টেশনের সবকিছু মাস্টারের কক্ষ থেকে পর্যবেক্ষণ করার নিমিত্তে পুরো স্টেশনের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ১৯টি সিসি ক্যামেরা যুক্ত করা হয়। কিন্তু ১২টি ক্যামেরা সচল থাকলেও অবশিষ্ট ক্যামেরাগুলো অকেজো পড়ে ছিল।

বিষয়টি স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীরা বেশ কিছু জাতীয়, আঞ্চলিক ও অনলাইন গনমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর সম্প্রতি রেল কর্তৃপক্ষ ক্যামেরাগুলো সচল করেছে। বর্তমানে পুরো স্টেশনে ১৯টি ক্যামেরা সচল রয়েছে।

সান্তাহার রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার হাবিবুর রহমান বলেন, স্টেশনে চরম জনবল সংকট রয়েছে। তবুও আমি সব সময় স্টেশনটিকে সচল রাখার চেষ্টা করে আসছি। অচল সিসি ক্যামেরাগুলো সচল করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে একাধিকবার লিখিতভাবে জানিয়েছি। কিন্তু কোন লাভ হয়নি এরপর পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ সম্প্রতি ক্যামেরাগুলো সচল করেছেন।