বঙ্গবন্ধু রেল সেতু হলে দক্ষিণ এশিয় আঞ্চলিক যোগাযোগ বাড়বে

ঢাকা, সোমবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২১ | ৫ মাঘ ১৪২৭

বঙ্গবন্ধু রেল সেতু হলে দক্ষিণ এশিয় আঞ্চলিক যোগাযোগ বাড়বে

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি ২:৫০ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২২, ২০২০

print
বঙ্গবন্ধু রেল সেতু হলে দক্ষিণ এশিয় আঞ্চলিক যোগাযোগ বাড়বে

রেল মন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে কথাটি বলেন তা বাস্তবায়নও করেন। অত্যান্ত পরিকল্পনা অনুযায়ী দেশকে এগিয়ে নিতে কাজ করছেন আওয়ামী লীগ সরকার। বিশেষ করে রেল যোগাযোগ আধুনিকতায় এগিয়ে নিতে তিনি যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। এরই অংশ হিসেবে যমুনায় দেশের দ্বিতীয় ডুয়েল গ্রেজ রেল সেতু নির্মাণ করতে যাচ্ছেন। যমুনা নদীতে বঙ্গবন্ধু সেতুর উত্তর পাশ দিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব রেলওয়ে সেতু নির্মাণ হলে দক্ষিণ এশিয় আঞ্চলিক যোগাযোগ বৃদ্ধিতে বড় ভুমিকা রাখবে।

রোববার দুপুরে সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসন সম্মেলন কক্ষে ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন উপলক্ষে এক প্রস্তুতি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

সেতুটির প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন করবেন।

মন্ত্রী বলেন, আগামী ২৯ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের মাধ্যমে সেতুটির নির্মাণ কাজ শুরু হবে। এতে নির্মাণ ব্যয় হবে ১৬ হাজার ৭৮০ কোটি টাকা। যার ১২ হাজার ১৪৯ কোটি টাকা জাপানের সহযোগীতা সংস্থা জাইকা দিচ্ছে। বাকিটা সরকার অর্থায়ন করছে। আশা করা হচ্ছে আগামী ২০২৪ সালের আগষ্ট মাসে কাজ শেষ হলে তা চলাচলের জন্য উন্মুক্ত হবে।

যমুনা নদীতে বঙ্গবন্ধু সেতুর উত্তর পাশ দিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব রেলওয়ে সেতু নির্মাণ হলে দক্ষিণ এশিয় আঞ্চলিক যোগাযোগ বৃদ্ধিতে বড় ভুমিকা রাখবে। এছাড়া এখন যে গতীতে ট্রেন চলছে তা কিছুটা মন্থর। তবে ডুয়েল লেনের রেল সেতুটি তৈরী হলে ঘন্টায় ১০০ কিলোমিটার গতীতে ট্রেন চলাচল করবে।

এছাড়া দেশের সর্ব উত্তরের জেলা গুলোর সাথে ঢাকার রেল পথ যোগাযোগ আরও সহজ করতে বগুড়া থেকে সিরাজগঞ্জ পর্যন্ত আলাদা রেলপথ নির্মাণের পরিকল্পনা শেষ পর্যায়ে। দ্রুতই এই কাজ শুরু করা হবে।

সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসক ড. ফারুক আহমেদের সভাপতিত্বে স্থানীয় সাংসদ অধ্যাপক ডা. হাবীবে মিল্লাত মুন্না, সাবেক মন্ত্রী ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ বিশ্বাস, রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সেলিম রেজা, মহাপরিচালক মো. শামচুজ্জামান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।