মায়ের ৫ দিন পর ছেলের মৃত্যু

ঢাকা, বুধবার, ২ ডিসেম্বর ২০২০ | ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

মায়ের ৫ দিন পর ছেলের মৃত্যু

জেলা প্রতিনিধি ২:১৯ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২১, ২০২০

print
মায়ের ৫ দিন পর ছেলের মৃত্যু

নাটোরের বাগাতিপাড়ায় বাসের ধাক্কায় মা হেনা বেগম নামের এক মায়ের মৃত্যুর ৫ দিন পর তার আহত ছেলে মোটরসাইকেল আরোহী রুদ্রও (১৭) মারা গেছেন। ২১ অক্টোবর, বুধবার সকালে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থেকে তার মৃত্যু হয়।


রুদ্র উপজেলার সোনাপুর হিজলি পাবনাপাড়া গ্রামের রুহুল আমিনের ছেলে। সে কাদিরাবাদ ক্যান্টনমেন্ট স্যাপার কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র ছিলেন।

স্থানীয়রা জানান, ছোট ছেলে রিয়াদের চিকিৎসার জন্য গত ১৬ অক্টোবর দুপুরে দুই ছেলেসহ মোটরসাইকেলে বাগাতিপাড়া থেকে মা হেনা নাটোর সদরে যান। সেখান থেকে ফেরার পথে নাটোর পিটিআই এলাকায় নাটোর-রাজশাহী মহাসড়কে একটি দ্রুতগামী বাস মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দেয়। এতে ওই দিনই মা হেনা বেগম মারা যান এবং পাঁচ বছর বয়সী ছোট শিশুসন্তান রিয়াদ মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে গিয়েও অলৌকিকভাবে অক্ষত রয়ে যায়।

তবে ওই দিন গুরুতর আহতাবস্থায় বড় ছেলে রুদ্রকে প্রথমে নাটোর সদর হাসপাতালে এবং পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন থেকে আজ বুধবার তার মৃত্যু হয়।

দয়ারামপুর ইউপি চেয়ারম্যান মাহাবুর ইসলাম মিঠু রুদ্রের মারা যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।