সিরাজগঞ্জ চাঁদাবাজীর অভিযোগে দুই গেইটম্যানকে অপসারণ

ঢাকা, সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ১৩ আশ্বিন ১৪২৭

সিরাজগঞ্জ চাঁদাবাজীর অভিযোগে দুই গেইটম্যানকে অপসারণ

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি ২:১৮ অপরাহ্ণ, আগস্ট ০৫, ২০২০

print
সিরাজগঞ্জ চাঁদাবাজীর অভিযোগে দুই গেইটম্যানকে অপসারণ

চাঁদাবাজীর অভিযোগে সিরাজগঞ্জ ক্রসবার-৩ এর গেইটম্যান জুরান আলী ও জুয়েল রানার অপসারন দাবীতে বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী। পরে পিতা-পুত্রকে অপসারণ করে নতুন গেইটম্যানকে নিয়োগ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। বুধবার বেলা সাড়ে ১১ টার গিকে তাদের অপসারণ করা হয়।

অপসারণকৃতরা হলেন- চরমালশাপাড়া গ্রামের জুরান আলী (৫০) ও তার ছেলে জুয়েল রানা (৩০)।

স্থানীয়দের অভিযোগ, জুরান আলী ও তার ছেলে জুয়েল রানা দীর্ঘদিন যাবত ক্রসবার-৩ এ দর্শনার্থীদের নিকট থেকে মটরসাইকেল, ভ্যান, রিক্সাসহ বিভিন্ন যানবহন ভিতরে প্রবেশ করার জন্য অবৈধভাবে যানবাহন প্রতি ১শ থেকে ২শ টাকা চাঁদা উত্তোলন করে।

সাবেক কাউন্সিলর ও পৌর আ’লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম হাশেম জানান, জুরান আলী ও তার ছেলে জুয়েল রানার বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরে ক্রসবার-৩ এর ভিতরে মদ, গাজা, ইয়াবাসহ বিভিন্ন মাদক ব্যবসার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত ঈদুল আযহা উপলক্ষে ক্রসবার-৩ এ চাঁদাবাজীর ঘটনা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঝড় উঠে।

এলাকাবাসী মিলে জুরান আলী ও তার ছেলে জুয়েল রানাকে অপসারণ দাবি করে। পরে তাদেরকে সরিয়ে নতুন করে মোঃ সাবান আলী ও মোঃ কবির হোসেনকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এই ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত জুরান আলী ও তার ছেলে জুয়েল রানা পলাতক রয়েছে।

সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নিবার্হী প্রকৌশলী মোঃ শফিকুল ইসলাম জানান, জুরান আলী ও তার ছেলে জুয়েল রানার বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে অপসারণের জন্য চিঠি ইস্যু করা হয়েছে এবং ঐখানে নতুন করে লোক নিয়োগ করা হয়েছে।