ভাঙনের শঙ্কায় নিলামে স্কুল

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৪ আগস্ট ২০২০ | ২০ শ্রাবণ ১৪২৭

ভাঙনের শঙ্কায় নিলামে স্কুল

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি ১১:০৮ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ০৩, ২০২০

print
ভাঙনের শঙ্কায় নিলামে স্কুল

গত বছর বন্যায় নদীর কাছাকাছি ছিল রাজশাহীর বাঘা উপজেলা চর কালিদাসখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভনটি। এবার নদীতে পানি বাড়ার শুরুতে ভাঙনের আশঙ্কায় টেন্ডারের মাধ্যমে স্কুলটি নিলাম দেওয়া হয়েছে। প্রথম ও দ্বিতীয়বার সরকারি মূল্য বেশি হওয়ায় কেউ সাড়া দেয়নি। তবে তৃতীয়বার সরকারি মূল্য কম করে দেওয়ায় বিদ্যালয়টি ক্রয় করেন স্থানীয় এক ঠিকাদার।

চকরাজাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আজিজুল আযম জানান, বর্তমানে স্কুলটি নদীর কিনার ঘেষে হুমকির মুখে দাঁড়িয়ে রয়েছে। তাই এটি স্থানান্তরের জন্য কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করা হয়েছিল। আবেদনের প্রেক্ষিত সম্প্রতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা প্রকৌশলী, শিক্ষা কর্মকর্তা ও কৃষি কর্মকর্তা সরেজমিন পরিদর্শন করেন। পরিদর্শন শেষে স্কুলটি স্থানান্তরের নির্দেশ দেন এবং ভবনের উন্মুক্ত টেন্ডারের আহ্বান করা হয়। 

প্রথমবার ১৫ জুন এবং দ্বিতীয়বার ১৯ জুন স্কুল ভবনের সরকারি তিন লাখ ৬৭ হাজার টাকা মূল্য নির্ধারণ করে উন্মুক্ত টেন্ডার আহ্বান করা হয়। কিন্তু সরকারি মূল্য বেশি হওয়ায় কোনো ঠিকাদার টেন্ডারে অংশগ্রহণ করেননি। পরে তৃতীয়বার ১ জুলাই টেন্ডার আহ্বান করায় ভবনটি দুই লাখ ৫৩ হাজার টাকায় নিলাম হয়েছে।

উপজেলা প্রকৌশলী রতন কুমার ফৌজদার ও প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এবিএম সানোয়ার হোসেন জানান, নতুন মূল্য দেখে পুরাতন মূল্য নির্ধারণ করে সব প্রস্তুতি গ্রহণ করেছিলাম। কিন্তু সেখানে স্কুল ভবনের বিষয়ে কেউ ডাক দেয়নি। ফলে তৃতীয়বার সরকারি মূল্য কম করে পুনরায় তারিখ নির্ধারণ করে টেন্ডারের আহ্বান করায় সেটি নিলাম হয়েছে। যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো থাকলে আরও বেশি দামে স্কুল ভবনটি বিক্রি করা যেতো।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা বলেন, নদী ভাঙন ও বন্যা পরিস্থিতি বুঝে স্কুল নিলাম দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। স্থানীয় এক ঠিকাদার দুই লাখ ৫৩ হাজার টাকায় ভবনটি ক্রয় করেছেন।