তাড়াশে ইমারত শ্রমিক আইসোলেশনে, পরিবার কোয়ারেন্টিনে

ঢাকা, বুধবার, ৩ জুন ২০২০ | ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

তাড়াশে ইমারত শ্রমিক আইসোলেশনে, পরিবার কোয়ারেন্টিনে

তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি ২:৫৫ অপরাহ্ণ, মার্চ ৩০, ২০২০

print
তাড়াশে ইমারত শ্রমিক আইসোলেশনে, পরিবার কোয়ারেন্টিনে

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে কাইয়ুম আলী নামে এক ইমারত শ্রমিককে সন্দেহবশত আইসোলেশনে রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এবং ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে পুরো পরিবারকে। ঘটনাটি ঘটেছে তাড়াশ উপজেলার দেশীগ্রাম ইউনিয়নের ছোট মাঝদক্ষিণা গ্রামে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ইমারত শ্রমিক কাইয়ুম আলী দুদিন আগে ঢাকা থেকে বাড়িতে ফিরেছেন। তার ঠা-া জ্বর দেখা দিলে প্রতিবেশিরা সন্দেহ করেন। তিনি করোনায় আক্রান্ত এমন সন্দেহের কারণে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এ অবস্থায় প্রাথমিক পর্যবেক্ষণের পর প্রশাসন তাকে আইসোলেশনে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

গত রোববার প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগের লোকজন কাইয়ুম আলীর বাড়িতে যান। তারা কোন প্রকার ঝুঁকি না নিয়ে কাইয়ুমকে হোম আইসোলেশনে রাখার সিদ্ধান্ত নেন। আর পরিবারের অন্য সব সদস্যকে কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়।

তাড়াশ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা জামাল উদ্দিন মিয়া বলেন, ’ধারণা করা হচ্ছে কাইয়ুম সাধারণ জ্বর ও সর্দি-কাশিতে আক্রান্ত তারপরও আমরা পর্যবেক্ষণে রেখেছি। প্রয়োজন হলে তার নমূনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হবে।’

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ মনিটরিং সেলের সমন্বয়কারী মোফাক্ষার উদ্দিন খাঁন বলেন, ‘সংবাদ পাওয়ার পরপরই আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিয়েছি। এখন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তারা বিষয়টি পর্যক্ষেণ করছেন।’