সিরাজগঞ্জে রোগীশূন্য হাসপাতাল

ঢাকা, শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০ | ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

করোনা আতঙ্ক

সিরাজগঞ্জে রোগীশূন্য হাসপাতাল

এইচ এম আলমগীর কবির, সিরাজগঞ্জ ৪:১২ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৮, ২০২০

print
সিরাজগঞ্জে রোগীশূন্য হাসপাতাল

করোনার আতঙ্কে সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতাল এখন রোগী শূন্যে হয়ে পড়েছে।  আতঙ্কে সকল ওয়ার্ডের রোগী ছাড়পত্র নিয়ে হাসপাতাল ছেড়ে বাড়ি চলে গেছেন। অথচ কয়েকদিন আগেও বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত শিশুসহ অনেক রোগী ভর্তি ছিল এ হাসপাতালে।

শনিবার দুপুরে সরজমিনে ২৫০ শর্য্যা হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায় বিভিন্ন ওয়ার্ডে মাত্র ১৮ জন রোগী।

হাসপতাল কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের জন্য ১০টি আইসোলেশন বেড তৈরী রাখলেও কেউ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত কিনা তা নিশ্চিত হতে পরীক্ষার জন্য সনাক্তকরণ কীট এখন পর্যন্ত হাসপাতালে পৌঁছেনি।

হাসপাতালের আউটডোর এবং ইনডোরে কর্মরত চিকিৎসক ও নার্সদের করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষার কোনো পিপিই না থাকলেও চিকিৎসক ও নার্সরা স্ব-স্ব উদ্যোগে জীবনের রিস্ক নিয়ে দায়িত্ব পালন করতে দেখা গেছে।

মেডিসিন ওয়ার্ডের সিনিয়র নার্স মমতাজ সিদ্দিক বলেন, এখানে ২৯ বেড থাকলেও করোনা আতঙ্কে সব রোগী ছাত্রপত্র নিয়ে বাড়ী চলে গেছে। এই ওয়ার্ডে মাত্র ১ জন রোগী আছে।

শিশু ওয়ার্ডের সিনিয়র নার্স ইশরাত জাহান বলেন, এই ওয়ার্ডে সব সময় ৪০/৫০ জন রোগী থাকে। কিন্তু করোনা আতঙ্ক সব চলে গেছে। মাত্র ৪ জন রোগী আছে। গাইনী ওয়ার্ডে ১১ জন ও সিসিইতে ২ জন ভর্তি আছে।

সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা. রঞ্জন কুমার দত্ত জানান, গত কয়েক দিন মানুষ আতঙ্কে হাসপাতালের আউটডোরে ভিড় করলেও ভয়ে কেউ হাসপাতালে ভর্তি হননি। ফলে হাসপাতালের সব ওয়ার্ডগুলোই বর্তমানে খালি হয়ে গেছে।

চিকিৎসকদের করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষায় ১০০ সেট সরঞ্জাম হাসপাতালে পৌছেছে বলে তিনি জানান।