সিরাজগঞ্জে বেড়েছে সড়ক দুর্ঘটনা

ঢাকা, বুধবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২০ | ১৫ মাঘ ১৪২৬

সিরাজগঞ্জে বেড়েছে সড়ক দুর্ঘটনা

আলমগীর কবির, সিরাজগঞ্জ ১:২৫ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৪, ২০২০

print
সিরাজগঞ্জে বেড়েছে সড়ক দুর্ঘটনা

২০১৯ সালে সড়ক দুর্ঘটনায় সিরাজগঞ্জ জেলায় ১১০ জন প্রাণ হারিয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন প্রায় দুই শতাধিক। জেলার সড়ক মহাসড়ক ও আঞ্চলিক সড়কে ২০১৯সালে ৬২টি দুর্ঘটনা ঘটেছে। ২০১৮ সালের তুলনায় ২০১৯ সালে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণহানির পরিমাণ বেড়েছে বলে জানান সংশ্লিষ্ঠ কতৃপক্ষ। ২০১৮ সালে আঞ্চলিক সড়ক ও মহাসড়কে দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছিল ৮৫ জন। আর ২০১৯ সালে প্রানহানির পরিমাণ ২৫ জন বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১০ জনে।

হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার ওসি আক্তারুজ্জামান বলেন, গত বছর হাটিকুমরুল-বগুড়া, বগুড়া-নগরবাড়ি, নাটোর-বনপাড়া ও হাটিকুমরুল-ঢাকা মহাসড়কের নলকা পর্যন্ত এ চারটি মহাসড়কে ২৯টি দুর্ঘটনায় ৪৬ জন নিহত এবং ২৫ জন আহত হয়েছে। আর মামলা হয়েছে ২৯টি। এর বাইরে আরও কিছু দুর্ঘটনা ও হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। তবে স্বজনরা মামলা এড়াতে লাশ নিয়ে যাওয়ার কারণে কিছু তথ্য থানায় রেকর্ডভুক্ত হয়নি।

তিনি আরও বলেন, মহাসড়কে যত্রতত্র ওভারটেক, বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালানো, তন্দ্রাচ্ছন্ন অবস্থায় বা হেলপারকে দিয়ে ড্রাইভিং করানোর কারণেই দুর্ঘটনা বাড়ছে। এছাড়াও বেহাল রাস্তাঘাট ও নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে শ্যালোইঞ্জিন চালিত যানবাহন মহাসড়কে চলাচল করাও দুর্ঘটনার কারণ।

বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থানার ওসি সৈয়দ শহিদ আলম জানান, গত বছর বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম ও হাটিকুমরুল সংযোগ সড়কের নলকা পর্যন্ত মহাসড়কে ১৬টি দুর্ঘটনায় ১৮ জন নিহত এবং ২৭ জন আহত হয়।

সিরাজগঞ্জ মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক হাজী আনছার আলী জানান, বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম মহাসড়কে অহরহ দুর্ঘটনা ঘটে। এ সড়কে বেশকিছু বাক রয়েছে, যার একপ্রান্ত থেকে অপর প্রান্ত দেখা যায় না। যা দুর্ঘটনার একটি বড় কারণ।

সিরাজগঞ্জ ট্রাফিক ইন্সপেক্টর সৈয়দ মিলাদুল হুদা জানান, মহাসড়কে অবৈধ থ্রি-হুইলার চলাচল করতে দেওয়া হচ্ছে না। নতুন সড়ক আইনের কিছু নতুন ধারা যুক্ত হয়েছে। কিন্তু সেগুলো প্রয়োগে এখনও চূড়ান্ত নির্দেশনা আসেনি।