যমুনায় বিলীন স্কুল খোলা মাঠে পরীক্ষা

ঢাকা, সোমবার, ৯ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

যমুনায় বিলীন স্কুল খোলা মাঠে পরীক্ষা

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি ১:৪৫ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১০, ২০১৯

print
যমুনায় বিলীন স্কুল খোলা মাঠে পরীক্ষা

সিরাজগঞ্জের চৌহালী উপজেলার রেহাই মৌশা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবন যমুনার ভাঙনে বিলীন হওয়ায় শিক্ষার্থীরা খোলা আকাশের নিচে পরীক্ষা দিচ্ছে। রাজশাহী বিভাগের দুর্গম এলাকা ঘোষিত একমাত্র উপজেলা চৌহালীর পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীকে শিক্ষিত করার প্রয়াসে ১৯৭৩ সালে সদিয়া চাঁদপুর ইউনিয়নে যমুনার পূর্বপাড়ে রেহাই মৌশা প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয়।

প্রতিষ্ঠার পর থেকে শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করতে পাঁচকক্ষ বিশিষ্ট একটি পাকা ভবন ও চারকক্ষ বিশিষ্ট একটি টিনের ঘর নির্মাণ করা হয়। বিদ্যালয়ে শিশু থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত প্রায় তিন শতাধিক শিক্ষার্থীকে মাত্র তিনজন শিক্ষক দিয়ে চলে পাঠদান।

গত ১৭ জুলাই যমুনা নদীর তীব্র ভাঙনে বিদ্যালয়ের পাকা ভবনসহ খেলার মাঠ নদীতে বিলীন হয়ে যায়। এরপর বোয়ালকান্দি গ্রামে টিনের ছাপরা তুলে চলছে পাঠদান কার্যক্রম। গত বৃহস্পতিবার শুরু হওয়া দ্বিতীয় সাময়িক পরীক্ষায় ১৮২ জন শিক্ষার্থী অংশ নেয়। টিনের ছাপরায় পরীক্ষার্থীদের স্থান সংকুলান না হওয়ায় অনেক শিক্ষার্থীকে রোদের মধ্যে পরীক্ষায় অংশ নিতে দেখা গেছে। এতে শিক্ষার্থীদের শারীরিক ও মানসিকভাবে চরম কষ্ট পোহাতে হচ্ছে।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জাহাঙ্গীর আলম জানান, যমুনা নদীতে বিদ্যালয় ভবন বিলীনের কারণে শিক্ষার্থীদের নিয়ে চরম অসহায় হয়ে পড়েছি। প্রায় এক মাস ধরে খোলা আকাশের নিচে অসহায়ভাবে ক্লাস করাতে হচ্ছে। দ্বিতীয় সাময়িক পরীক্ষায় প্রচণ্ড রোদের কারণে কয়েকজন শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েছিল। দুর্ভোগ লাঘবে দ্রুত ভবন নির্মাণের দাবি জানান তিনি।

চৌহালী উপজেলা প্রাথমিক কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মনিরুজ্জামান জানান, নদীভাঙনের কারণে বিদ্যালয়ের অবকাঠামোগত সমস্যা সৃষ্টি হচ্ছে।