ঘুষ না দেওয়ায় পা ভাঙল পুলিশ

ঢাকা, রবিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৯ | ২ ভাদ্র ১৪২৬

ঘুষ না দেওয়ায় পা ভাঙল পুলিশ

অভিযোগ ভুক্তভোগীর

রাজশাহী ব্যুরো ১১:৫৯ পূর্বাহ্ণ, জুন ১৩, ২০১৯

print
ঘুষ না দেওয়ায় পা ভাঙল পুলিশ

রাজশাহীতে ঘুষ না দেওয়ায় পিটিয়ে শ্রমিকের পা ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে এক পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে। তাকে দুর্গাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তবে এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ওই পুলিশ সদস্য।

গত মঙ্গলবার ভুক্তভোগী সাইদুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, একটি অভিযোগের ভিত্তিতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তার ছেলে আসাদুল ইসলামকে আটক করেন দুর্গাপুর থানার এএসআই হাফিজ। কিন্তু ছেলেকে থানায় না নিয়ে অনন্তকান্দি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে নিয়ে যান ওই এএসআই।

এ সময় ছেলেকে ছাড়াতে গেলে তার কাছে ২০ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করেন হাফিজ। টাকা নেই জানালে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন তিনি। এক পর্যায়ে ৯০০ টাকা হাতিয়ে নিয়েও হাফিজ বাঁশের লাঠি দিয়ে পিটিয়ে তার বাম পা ভেঙে দেন। পরে গভীর রাতে ছেলেকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে এএসআই হাফিজ বলেন, ‘আসাদুল নামে কাউকে আটক বা তার বাবার কাছে ঘুষ দাবি বা কাউকে নির্যাতন করা হয়নি।’

এদিকে স্বাস্থ্য কমপ্লে­ক্সের চিকিৎসক আসফাক হোসেন বলেন, সাইদুলের হাঁটুতে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে হাড় ভেঙে গেছে। তবে এক্স-রে করলে নিশ্চিত হওয়া যাবে কী পরিমাণ ভেঙেছে। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মেশিন না থাকায় বাইরে থেকে এক্স-রে করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে দুর্গাপুর থানার ওসি আবদুল মোতালেব বলেন, এ বিষয়ে আমার কাছে কেউ অভিযোগও করেনি। অভিযোগ পেলে বিষয়টি তদন্ত করা হবে।