ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪ | ২ শ্রাবণ ১৪৩১

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

বেলকুচিতে আ.লীগ নেতাকে লক্ষ্য করে গুলির প্রতিবাদে মানববন্ধন

বেলকুচি (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি
🕐 ৫:৪১ অপরাহ্ণ, জুন ০৩, ২০২৪

বেলকুচিতে আ.লীগ নেতাকে লক্ষ্য করে গুলির প্রতিবাদে মানববন্ধন

সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের মানবসম্পদ ও শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক শওকত তালুকদারকে লক্ষ্য করে গুলি ও হত্যার উদ্দেশ্যে হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছেন রাজাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। এ সময় প্রতিবাদকারীরা হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান ।

 

রোববার (২ জুন) বিকেল ৫ ঘটিকার দিকে রাজাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আয়োজনে রাজাপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ কার্যালয়ের সামনে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।

এতে রাজাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও রাজাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বদর তালুকদারের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী আকন্দ, রাজাপুর ইউপি চেয়ারম্যান সোনিয়া সবুর আকন্দ, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আতাউর রহমান, শওকত তালুকদার, ইউনিয়ন আ.লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সেলিম রেজা, পৌর ছাত্র লীগের সভাপতি আকতার হামিদ প্রমূখ।

এ সময় বক্তারা বলেন, শওকত তালুকদারকে লক্ষ্য করে হত্যার উদ্দেশ্যে গুলি করা হয়েছে। বিগত দিনে এই ইউনিয়নে অনেক জনকে হত্যা করা হয়েছে। এ সমস্ত ঘটনায় মামলা হলেও বিচার হয় না। প্রকৃত আসামিরা ধরা ছোঁয়ার বাইরে থাকে। এভাবে চলতে থাকলে এই এলাকায় কখন কাকে সন্ত্রাসীদের হাতে খুন হতে হবে সেটি কেউ বলতে পারে না। তাই দ্রুত হামলাকরীদের গ্রেপ্তার করে শাস্তির ব্যবস্থা করা না হলে আগামীতে বড় ধরনের আন্দোলন কর্মসূচি দেয়া হবে।

উল্লখ্য, ১ জুন রাত পৌনে ১২ দিকে উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়নের মকিমপুর বাজারে নিজ বাড়ির সামনে একটি দোকানে দাড়িয়ে ছিল শওকত তালুকদার। অন্ধকারাচ্ছন্ন রাস্তা দিয়ে আসা তিন তরুণকে দেখে সন্দেহ হলে দোকানে প্রবেশ করেন শওকত। শওকতকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে পালিয়ে যায় তারা। গুলিটি লক্ষভ্রষ্ট হয়ে দোকানের ভিতরে থাকা কলেজছাত্র আল আমিনের পায়ে লাগে।

এ বিষয়ে বেলকুচি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আনিছুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। মামলায় ৩ জনকে অজ্ঞাত করে আসামি করা হয়েছে। আসামিদের সনাক্ত করে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

 
Electronic Paper