পাবনায় টিসিবির পণ্য তোলেননি ডিলাররা

ঢাকা, শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮ | ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

পাবনায় টিসিবির পণ্য তোলেননি ডিলাররা

পাবনা প্রতিনিধি ৯:৫১ অপরাহ্ণ, মে ১৬, ২০১৮

print
পাবনায় টিসিবির পণ্য তোলেননি ডিলাররা

রমজান মাসে বাজার স্থিতিশীল রাখার জন্য সাশ্রয়ী মূল্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় কিছু পণ্য সাধারণ ভোক্তাদের কাছে পৌঁছে দেওয়ার সরকারি উদ্যোগ ভেস্তে যেতে বসেছে। চলতি মাসের ৬ তারিখ থেকে ছোলা, সোয়াবিন তেল, চিনি, ডাল, খেজুরসহ বেশ কয়েকটি পণ্য সাশ্রয়ী মূল্যে ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) মাধ্যমে ভোক্তাদের কাছে পৌঁছানোর কথা।

কিন্তু পাবনায় এ কার্যক্রম শুরু হয়নি। টিসিবির ডিলাররা জানান, বাজার মূল্যের চেয়ে টিসিবি পণ্যের দাম বেশি। ফলে লোকসানের আশঙ্কায় তারা টিসিবি পণ্য উত্তোলন করেননি।
পাবনা জেলা প্রশাসনের নেজারত ডেপুটি কালেক্টর (এনডিসি) তানভীর হাসান চৌধুরী জানান, চলতি বছর পাবনা জেলায় টিসিবির দুজন ডিলার নিয়োগ করা হয়। এরা হলেন, ঈশ্বরদী উপজেলার মেসার্স সুমন স্টোরের স্বত্বাধিকারী সিরাজুল ইসলাম। একই উপজেলার মেসার্স ইসলামিক ট্রেডার্সের স্বত্বাধিকারী সাইফুল ইসলাম। নিয়ম অনুযায়ী টিসিবি পণ্য সংগ্রহের পর ট্রাকে করে ভ্রাম্যমাণ অবস্থায় পাবনা শহরের বিভিন্ন স্থানে তাদের পণ্য বিপণন করার কথা। কিন্তু গত মঙ্গলবার পর্যন্ত তারা টিসিবির মালামাল তোলেননি।   
টিসিবির ডিলার ও ঈশ্বরদীর সুমন স্টোরের মালিক সিরাজুল ইসলাম জানান, টিসিবির নিয়ম অনুযায়ী প্রতিদিন ডিলার প্রতি ৪০০ কেজি চিনি, ৪০০ লিটার সোয়াবিন তেল, ৪০০ কেজি মসুর ডাল, ৪০০ কেজি ছোলা ও ৫০ কেজি করে খেজুর বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। প্রতি ডিলার তিন দিনের বরাদ্দ এক সঙ্গে রাজশাহীর টিসিবির বিভাগীয় অফিস থেকে সংগ্রহ করার কথা। কিন্তু চলতি বছর টিসিবির পণ্যের দাম বাজার মূল্যের চেয়ে বেশি। ফলে ডিলাররা মালামাল সংগ্রহ করেননি।
অপর ডিলার ইসলামিক ট্রেডার্সের মালিক সাইফুল ইসলাম জানান, বাজারে যেখানে ছোলা ৫৮ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। সেখানে টিসিবি এবার কেজি প্রতি ছোলার দাম ধরেছে ৭০ টাকা। প্রতি কেজি চিনি ৫২ টাকার জায়গায় টিসিবি নির্ধারণ করেছে ৫৫ টাকা। সাধারণ ভোক্তারা বাজার দামের চেয়ে কিছুটা কম দাম আশা করেই টিসিবির পণ্য কেনেন। বাজার দরের চেয়ে বেশি দাম হওয়ায় ভোক্তারা টিসিবির পণ্য নিতে চাইবে না। ফলে তারাও আর্থিকভাবে ক্ষতির সম্মুখীন হবেন। তিনি আরও জানান, চলতি বছর টিসিবির পণ্য সংগ্রহ করার জন্য তারা ট্রাক ভাড়াসহ অন্য আনুষঙ্গিক প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার পরেও শুধু দাম বেশি হওয়ার কারণে পণ্য উত্তোলন করছে না।
পাবনার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) শাফিউল ইসলাম জানান, টিসিবির ডিলারদের কার্যক্রম তদারকি করার জন্য সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। পাবনার সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা জয়নাল আবেদিন জানান, ডিলারদের কাছে পণ্য বিক্রি না করার কারণ জানতে চেয়েছিলাম। তারা লিখিত জবাব দিয়েছে।