পেট্রোল পাম্পে মারধর, পোষাক ফেলে দৌড়!

ঢাকা, সোমবার, ৩ অক্টোবর ২০২২ | ১৮ আশ্বিন ১৪২৯

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

পেট্রোল পাম্পে মারধর, পোষাক ফেলে দৌড়!

এইচ এম আলমগীর কবির, সিরাজগঞ্জ
🕐 ৩:১৪ অপরাহ্ণ, আগস্ট ০৬, ২০২২

পেট্রোল পাম্পে মারধর, পোষাক ফেলে দৌড়!

জ্বালানী তেলের দাম বৃদ্ধির কথা শুনে সিরাজগঞ্জ শহরের মিরপুর ফিলিং স্টেশনে শত শত যানবাহনের ভিড় জমে। ফলে তেল দেওয়া বন্ধ করে দেয় পাম্প কর্তৃপক্ষ। ফলে যানবাহনের স্টাফরা উত্তেজনা সৃষ্টি ও পেট্রোল পাম্প ভাঙচুরের ঘটনা ঘটায়।

ওই সময় এক ব্যক্তিকে বেদম মারধরের ঘটনা ঘটলে তিনি পোশাক খুলে ফেলে দৌড়ে পালাতে বাধ্য হন। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

শুক্রবার (৫ আগস্ট) রাত সাড়ে ১০ টার দিকে শহরের মিরপুর ফিলিং স্টেশনে এ ঘটনা ঘটে।

শনিবার (৬ আগস্ট) সকাল থেকে ওই ঘটনার ভিডিও ফেসবুক ভাইরাল হয়। তবে মারধরের শিকার ওই ব্যক্তির পরিচয় জানা যায়নি।

স্থানীয়রা জানান, রাতে হঠাৎ করে তেলের দাম বাড়লে মিরপুর ফিলিং স্টেশনে গ্রাহকদের উপচে পড়া ভিড় শুরু হয়। ঘুম থেকে উঠে মানুষ তেলের জন্য পাম্পে আসেন। বিশেষ করে বাইক ও ট্রাকের ভিড়ে দিশেহারা হয়ে যান পেট্রোল পাম্পের কর্মচারীরা। এ অবস্থায় কর্তৃপক্ষ তেল বিক্রি বন্ধ করে দিলে গ্রাহকদের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টির একপর্যায়ে ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এ সময় এক ব্যক্তিকে সেখানে থাকা কয়েকজন মারতে শুরু করেন। মারের হাত থেকে বাঁচতে ওই ব্যক্তি নিজের পোশাক খুলে দৌড়ে পালিয়ে যান। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

মিরপুর ফিলিং স্টেশনের ম্যানেজার মো. বাবু খান জানান, তেলের দাম বাড়ার খবরে মুহূর্তেই শতশত বাইক ও ট্রাক এসে পাম্পে তেলের জন্য সিরিয়াল দেন। প্রতি বাইকার টাংকি পুরো করে তেল নিতে চান। এমন পরিস্থিতিতে হিমশিম খেয়ে বাধ্য হয়ে আমরা তেল দেওয়া বন্ধ করে দেই। এতে গ্রাহকরা ক্ষিপ্ত হয়ে পাম্পে ভাঙচুর শুরু করেন।

এবিষয়ে মিরপুর ফিলিং স্টেশনের স্বত্বাধিবারী হাজী আকবর আলী জানান, শুক্রবার রাত সাড়ে দশ টার দিকে ম্যানেজার আমাকে ফোন দিলে সাথে সাথে পুলিশকে অবগত করি। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হুমায়ুন কবির বলেন, মিরপুর ফিলিং স্টেশনে ভাঙচুরের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ হয়। তবে সকালে একটি মারধরের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে শুনেছি। তবে কেউ এবিষয়ে অভিযোগ করেনি।

 
Electronic Paper