মফস্বলে বৈদ্যুতিক লাইনে ঝুঁকি

ঢাকা, রবিবার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১ | ৪ মাঘ ১৪২৭

মফস্বলে বৈদ্যুতিক লাইনে ঝুঁকি

ইমতিয়াজ হাসান রিফাত ১১:৪৪ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ০৪, ২০২০

print
মফস্বলে বৈদ্যুতিক লাইনে ঝুঁকি

বাংলাদেশে বর্তমানে প্রায় সব জায়গায় বিদ্যুৎ আছে। শহর থেকে শুরু করে মফস্বলেও। কিন্তু সেই বৈদ্যুতিক লাইনগুলোতে দেওয়া নেই প্লাস্টিক। কিছু কিছু শহরে দেওয়া থাকলেও গ্রামের কোথাও প্লাস্টিক মোড়ানো লাইন নেই। যার ফলে মাঝে মাঝেই ছোট বড় দুর্ঘটনা ঘটে। আবার গ্রামের ভিতর দিয়ে যে বৈদ্যুতিক লাইনগুলো নেওয়া হয়েছে তার জন্যও কোনো প্লাস্টিকে মোড়ানো লাইন ব্যবহার করা হয়নি। ফলে হালকা ঝড়-বাতাসে গাছের ডালপালা ভেঙে লাইনে পড়ে দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা থাকে।

বৈদ্যুতিক লাইনে প্লাস্টিক না দেওয়ায় অনেক পাখিও বৈদ্যুতিক শকে মারা যেতে দেখা যায়। কিছুদিন পরপর এই দুর্ঘটনা এড়াতে বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ লাইনের পাশে থাকা গাছের ডালপালা কাটতে লোক পাঠায়। এতে করে দুর্ঘটনা কিছুটা এড়াতে পারলেও মফস্বলের মানুষের অনেক ক্ষতি হয়। গ্রামের মানুষের গাছ কেটে ফেলায় তারা বড় অঙ্কের আর্থিক ক্ষতিতে পড়ে। বৈদ্যুতিক লাইনের পাশের জায়গা খালি রাখাতেও তাদের ক্ষতি হয়। তাই ক্ষতি এড়াতে মফস্বলের বৈদ্যুতিক লাইনগুলোতে যদি প্লাস্টিকে মোড়ানো লাইন ব্যবহার করা হতো তাহলে হয়তো এতটা ক্ষতি হতো না।

ইমতিয়াজ হাসান রিফাত
শিক্ষার্থী, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়