বেক্সিমকো ও আকিজ গ্রুপের প্রতি কৃতজ্ঞতা

ঢাকা, শুক্রবার, ৫ জুন ২০২০ | ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

বেক্সিমকো ও আকিজ গ্রুপের প্রতি কৃতজ্ঞতা

আবু ফারুক ১:৪৭ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ০৫, ২০২০

print
বেক্সিমকো ও আকিজ গ্রুপের প্রতি কৃতজ্ঞতা

বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাস সংক্রমণের তীব্রতা দিন দিন বাড়ছেই। প্রতিষেধকের অভাব এবং আক্রান্ত রোগীদের যথাযথ চিকিৎসা সরঞ্জামের অপ্রতুলতায় দীর্ঘ হচ্ছে মৃত্যুর মিছিল। বাংলাদেশও এর ব্যতিক্রম নয়। যদিও দেশে এখনও পর্যন্ত মৃত্যুর হার তেমন ভীতিজাগানিয়া নয় তবু চিকিৎসক ও সংশ্লিষ্ট স্বাস্থ্যকর্মীদের ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম (পিপিই), করোনা শনাক্তের পরীক্ষাকেন্দ্র বা হাসপাতাল এবং পরীক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় টেস্ট কিট সবকিছুর সংকট দেশের সাধারণ মানুষদের উদ্বেগ ও আতঙ্ক বাড়িয়েছে।

এরই মাঝে দেশের দুই বড় শিল্পগোষ্ঠী ‘বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস’ এবং ‘আকিজ গ্রুপ’ এগিয়ে এসেছে করোনা যুদ্ধ মোকাবেলায় সরকারকে সহায়তা করতে। বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস চিকিৎসক ও সংশ্লিষ্ট স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য ১৫ কোটি টাকার ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম (পিপিই), ওষুধ ও করোনা পরীক্ষার সরঞ্জাম (টেস্ট কিট) দিচ্ছে। অন্যদিকে, সম্পূর্ণ বিনামূল্যে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের যথাযথ চিকিৎসার সুযোগ নিশ্চিত করতে দেশের অন্যতম শিল্পগোষ্ঠী আকিজ গ্রুপ রাজধানীর তেজগাঁওয়ে তাদের নিজস্ব জমিতে ৩০১ শয্যাবিশিষ্ট একটি হাসপাতাল নির্মাণ করছে। আকিজ গ্রুপের এই সময়োপযোগী মহান উদ্যোগের সঙ্গে জড়িত আছে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রও।
দেশের এমন ক্রান্তিলগ্নে সরকারের একক প্রচেষ্টায় প্রায় ১৭ কোটি মানুষের প্রাণ রক্ষায় যথাযথ উদ্যোগ গ্রহণ ও দ্রুত বাস্তবায়ন খুব কঠিন।

এজন্য দেশের বড় বড় শিল্প প্রতিষ্ঠান, ব্যবসায়ী গ্রুপ, বিত্তবানদের একান্ত সহায়তা খুব গুরুত্বপূর্ণ। অপ্রত্যাশিত এমন গভীর সংকটে সরকার ও দায়িত্বশীল প্রতিষ্ঠান, বিভিন্ন পর্যায়ের জনপ্রতিনিধি ও রাজনৈতিক দলগুলোর পাশাপাশি দেশের বিভিন্ন প্রান্তের অনেক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সাধারণ মানুষদের মাঝে করোনা সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টিতে কাজ করছেন। এছাড়া গরিব, অসহায় ও হতদরিদ্র লোকদের কাছে খাবার, পানি, স্বাস্থ্য সুরক্ষায় মাস্ক, সাবান, স্যানিটাইজার ইত্যাদি বিতরণ করা হচ্ছে। অনেকে ব্যক্তিগত উদ্যোগেও করছেন সাহায্য-সহায়তা। জাতির এমন বিপদের সময় সচেতনতা, চিকিৎসা ও বেঁচে থাকার রসদ যোগানো বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস, আকিজ গ্রুপ ও গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রসহ সকল পর্যায়ের সংগঠন ও ব্যক্তিকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা। দেশের বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত ও স্বনামধন্য অন্যান্য ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান ও বিত্তবানদের করোনা যুদ্ধ জয়ে সক্রিয় উদ্যোগ নিয়ে মানবতার অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপনে এগিয়ে আসার বিনীত আহবান করছি।

আবু ফারুক, বনরূপাপাড়া, সদর, বান্দরবান