সাংস্কৃতিক আগ্রাসনের প্রভাব

ঢাকা, রবিবার, ১২ জুলাই ২০২০ | ২৮ আষাঢ় ১৪২৭

পাঠকের কলাম

সাংস্কৃতিক আগ্রাসনের প্রভাব

আলী আরমান ৯:২৪ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৯

print
সাংস্কৃতিক আগ্রাসনের প্রভাব

ইলেকট্রনিকস ও প্রিন্ট মিডিয়ার মাধ্যমে আমরা প্রতিনিয়ত হত্যা, গুম, চুরি, ছিনতাই, ধর্ষণ ও নানা ধরনের সামাজিক অস্থিরতার খবর পেয়ে থাকি। সামাজিক এসব অবক্ষয় ও বিশৃঙ্খলার মূলে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে প্রভাব ফেলছে ভিনদেশীয় সংস্কৃতি।

ভিনদেশীয় সংস্কৃতির প্রভাব বা সাংস্কৃতিক আগ্রাসন কী? সমাজবিজ্ঞানী ম্যাকাইভার বলেছেন, আমরা যা তাই আমাদের সংস্কৃতি। বিশদভাবে বলা যায়, কোনো অঞ্চলে বসবাসকারী মানুষের আচার-ব্যবহার, সামাজিক সম্পর্ক, ধর্মীয় রীতিনীতি, শিক্ষা-দীক্ষা, জীবিকার উপায়, সংগীত, নৃত্য, শিল্প, সাহিত্য, দর্শন, বিজ্ঞান, নাট্যশালা- এ সবই তার সংস্কৃতি। কোনো জাতির পরিচয় তুলে ধরার জন্য সংস্কৃতি একটা বিরাট পন্থা হিসেবে কাজ করে।

এটি একটি রাষ্ট্র বা জাতির মেরুদণ্ড। সংস্কৃতি এমন এক শক্তিশালী নিয়ামক, যা কোনো জাতি বা রাষ্ট্রের উন্নতির প্রণোদনা হিসেবে কাজ করে। একটি দেশের সংস্কৃতি যখন অন্যান্য দেশের সংস্কৃতিকে ধ্বংস করে নিজের আধিপত্য বিস্তার করতে চায় এবং সাংস্কৃতিক স্থান দখলে নিয়ে নেয় তখন তাকে সাংস্কৃতিক আগ্রাসন বলা হয়। আমাদের রয়েছে নিজস্ব ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি। অথচ আমাদের এই নিজস্ব ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি আজ ভিনদেশীয় সাংস্কৃতিক আগ্রাসনের শিকার।

সাংস্কৃতিক আগ্রাসনের ভেতর দিয়ে একটা দেশের নিজস্ব ইতিহাস, মূল্যবোধ ও বিশ্বাসের ধরন উল্টাপাল্টা করে দেওয়া হয়। অস্পষ্ট করে তোলা হয় তার আত্মপরিচয়কে। ভিনদেশি সংস্কৃতির প্রভাবে আমাদের নিজস্ব গৌরবোজ্জ্বল সংস্কৃতি আজ হারিয়ে যেতে বসেছে। পশ্চিমা সংস্কৃতির প্রভাব আমাদের সংস্কৃতির জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে।

স্টার জলসা, স্টার প্লাস, জি স্মাইল, জিটিভি, সনি, স্টার ওয়ানসহ প্রায় ৪০টি ভারতীয় চ্যানেল বাংলাদেশে সম্প্রচার হচ্ছে। এসব চ্যানেল দেখে আমাদের শিশুরা মাতৃভাষা শেখার আগেই হিন্দি ভাষা শিখছে। শিখছে ইংরেজি ভাষা। ভারতীয় চ্যানেলগুলোয় প্রচারিত কার্টুনগুলো আমাদের শিশুদের এতটাই প্রভাবিত করছে যে, বাসার টিভি অন করলেই তারা কার্টুন দেখতে চায়। বাসার বড় কেউ যদি খবর বা গুরুত্বপূর্ণ কোনো অনুষ্ঠান দেখতে চায়, তাহলে তারা কান্নাকাটি শুরু করে দেয়। আর এসব কার্টুনে এমন কিছু চরিত্র থাকে, যার সংলাপ ও মুখভঙ্গি শিশুসুলভ নয়।

এছাড়াও কিছু কিছু টিভি সিরিয়ালে শিশুদের দিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ, অশালীন, ঝগড়া-বিবাদপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করানো হয়, যা আমাদের শিশুদের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। এর ফলে শিশুদের সুষ্ঠু মানসিক বিকাশে অন্তরায় ঘটে।

অনেক টিভি সিরিয়ালে এমন কিছু চরিত্র, সংলাপ, কাহিনী ও দৃশ্য থাকে, যার প্রভাবে সমাজে অশান্তি ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়। এসব টিভি সিরিয়ালে দেখানো পোশাক ও অলঙ্কারের অনুরূপ পোশাক ও অলঙ্কার তৈরি হয়। শহর ও গ্রামের বাজারে এসব পোশাক ও অলঙ্কার বিক্রি হয়।

আলী আরমান : শিক্ষার্থী, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া।
armaniu7272@gmail.com