অনৈতিক কাজ করলে কাউকেই ছাড় নয় : ডিজি এনআইডি

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক / ৩:০৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৪,২০২০

অনৈতিক কাজ করলে কাউকেই ছাড়া দেওয়া হবে না উল্লেখ করে জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম বলেছেন, বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন বা এনআইডি উইংয়ের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হোক এটা আমরা কিছুতেই চাই না। জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) জালিয়াতিতে জড়িত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করা হবে। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টায় অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা জানান।

তিনি বলেন, এনআইডি জালিয়াতিতে জড়িতদের বিরুদ্ধে আমরা ইতোমধ্যে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করেছি। সম্প্রতি ঢাকায় এনআইডি জালিয়াতির সঙ্গে জড়িত আইডিইএ প্রকল্পের আউটসোর্সিং ডাটা এন্ট্রি অপারেটর দুইজনকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন অনৈতিক কাজে জড়িত থাকার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় গত ৮ বছরে সর্বমোট ৩৯ জনকে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করা হয় এবং কালো তালিকাভুক্ত করা হয়। আমরা কোন জালিয়াতকারীকেই ছাড় দেবো না।

তথ্য গোপন করে দ্বৈত ভোটার হওয়ায় ডা. সাবরিনার বিরুদ্ধে যথাযথ পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ডা. সাবরিনা শারমিন হুসেনের দুইটি এনআইডি লক করা হয়েছে। একইসাথে গুলশান থানা নির্বাচন অফিসারকে জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন আইন, ২০১০ এর ধারা ১৪ ও ১৫ অনুযায়ী মামলা করার নির্দেশনা প্রদান করা হয় এবং ৩০ আগষ্ট বাড্ডা থানায় মামলা দায়ের করা হয়। ডা. সাবরিনা শারমিন হুসেন কিভাবে দুই বার ভোটার হয়েছেন এবং তার সাথে কেউ জড়িত আছে কিনা তা পুঙ্খানুপুঙ্খরূপে তদন্তের জন্য নির্বাচন কমিশন ও বুয়েট প্রতিনিধিসহ আইটি বিশেষজ্ঞ নিয়ে ৬ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কুষ্টিয়ায় এনআইডি জালিয়াতির বিরুদ্ধে গৃহিত পদক্ষেপ প্রসঙ্গে এনআইডির ডিজি বলেন, আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তার মাধ্যমে এটি তদন্ত করা হয় এবং প্রাপ্ত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে ছয় জন ব্যক্তির জাতীয় পরিচয়পত্র ব্লক করা হয়। জেলা প্রশাসক, কুষ্টিয়া কর্তৃক অধিকতর তদন্ত শেষে প্রতিবেদন দাখিল করেছেন। এর ক্রমধারায় অধিকতর তদন্তের জন্য নির্বাচন কমিশনেরে একজন যুগ্মসচিবের নেতৃত্বে চার সদস্য বিশিষ্ট আরও একটি তদন্ত কমিটি গ্রহণ করা হয়েছে। সেই তদন্তসমূহের সুপারিশের উপর ভিত্তি করে কোন কর্মকর্তা/কর্মচারী অভিযুক্ত প্রমানিত হলে তাদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য কমিশন নির্দেশনা প্রদান করেছেন।

দেশব্যাপী এনআইডি কার্যক্রম তদারকিতে সাঁড়াশি অভিযান চলবে জানিয়ে সাইদুল ইসলাম বলেন, ঢাকা জেলায় সাঁড়াশি অভিযান পরিচালনার জন্য পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট চারটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। ইতোমধ্যে ঢাকার প্রত্যেক থানায় অভিযান চালানো হয়েছে। পর্যায়ক্রমে দেশব্যাপি ১০ টি টিমের মাধ্যমে সাঁড়াশি ও ঝটিকা অভিযান পরিচালনা করা হবে। এই অভিযান নিয়মিত চলবে। প্রতি মাসে এই কমিটি জেলা উপজেলায় অভিযানে যাবে এবং সার্বিক বিষয় পর্যালোচনা করবে। কেউ অপরাধ করলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, যেখানে যেখানে এনআইডি সেবা দেওয়া হবে তার সব অফিস সিসি টিভির আওতায় আনার জন্য কাজ চলছে।

সম্পাদক ও প্রকাশক : আহসান হাবীব
উপদেষ্টা সম্পাদক : মোশতাক আহমেদ রুহী

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : বসতি হরাইজন, ১৭-বি, বাড়ি-২১, সড়ক-১৭, বনানী, ঢাকা
ফোন : বার্তা-৯৮২২০৩২, ৯৮২২০৩৭, মফস্বল-৯৮২২০৩৬
বিজ্ঞাপন-৯৮২২০২১, ০১৭৮৭ ৬৯৭ ৮২৩,
সার্কুলেশন-৯৮২২০২৯, ০১৮৫৩ ৩২৮ ৫১০
Email: kholakagojnews7@gmail.com
            kholakagojadvt@gmail.com