ভিপি নুরের পক্ষে বিপক্ষে অবস্থান

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৯:১২ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৪,২০২০

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সাবেক সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুরের বিরুদ্ধে হওয়া মামলার পক্ষে ও বিপক্ষে মানববন্ধন হয়েছে। ঢাকা ও রংপুরে মানববন্ধন হয়। গতকাল বুধবার ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ে দাঁড়িয়ে নুরের বিচার দাবি করেন মামলাকারী ছাত্রীর সতীর্থরা। অন্যদিকে নুরের বিরুদ্ধে হওয়া মামলার প্রতিবাদে রংপুরে মাঠে নামে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদ।

এদিকে পরিষদের আহ্বায়ক ধর্ষণ মামলায় অভিযুক্ত হাসান আল মামুনকে অব্যাহতি দিয়েছে সংগঠনটি। ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে তাকে বিস্তারিত জানাতেও বলা হয়েছে। পাশাপাশি ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটিও গঠন করেছে ছাত্র অধিকার পরিষদ।

গতকাল সংগঠনটির যুগ্ম আহ্বায়ক মুহাম্মদ রাশেদ খানের সই করা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। তদন্ত কমিটির তিন সদস্য হলেন- সংগঠনটির ঢাবি শাখার সভাপতি বিন ইয়ামিন মোল্লা এবং কেন্দ্রীয় পরিষদের দুই যুগ্ম-আহ্বায়ক তারেক রহমান ও রাফিয়া সুলতানা। কমিটিকে আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে সুপারিশসহ ঘটনার বিস্তারিত তথ্য কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদকে জানাতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ছাত্র অধিকার পরিষদ নারী-পুরুষসহ বাংলার গণমানুষের অধিকার আদায়ে সোচ্চার রয়েছে। এ অবস্থায় ঢাবির একজন শিক্ষার্থী ধর্ষণ ও ধর্ষণে সহযোগিতার অভিযোগে সংগঠনের আহ্বায়ক হাসান আল মামুনসহ চার নেতাকর্মীর নামে মামলা করেছেন। ছাত্র অধিকার পরিষদ নারী নিপীড়ন ও নির্যাতনের বিরুদ্ধে সবসময় সোচ্চার ভূমিকা পালন করে।

সংগঠনের নেতাকর্মীদের নামে মামলার ঘটনাটির সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। এর মাধ্যমে প্রকৃত রহস্য উদঘটিত হবে। একই দিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে দাঁড়িয়ে নুরুল হক নুরসহ ছাত্র অধিকার পরিষদের ছয় নেতাকে বিচারের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলাকারী ছাত্রীর সতীর্থরা। ‘ভুক্তভোগীর সতীর্থবৃন্দ’ ব্যানারে মানববন্ধন থেকে এ দাবি জানান তারা।

মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী সালাউদ্দিন আহমেদ বলেন, ভুক্তভোগী ছাত্রী আমাদের সহপাঠী। আমাদের এ আন্দোলন কোনো দলের বিরুদ্ধে নয়, কোনো রাজনৈতিক প্রতিহিংসার জন্য নয়। ভুক্তভোগী যাতে সুষ্ঠু বিচার পায়, এটাই হচ্ছে আমাদের মানববন্ধনের মূল লক্ষ্য। আরেক শিক্ষার্থী আনোয়ারুল হক দিপু বলেন, মিডিয়ায় নুরুল হক নুরকে সামনে আনায় প্রকৃতপক্ষে যারা ধর্ষক, তারা আড়ালে পড়ে গেছে।

এটাকে আন্দোলনের মাধ্যমে রাজনৈকিভাবে প্রভাবিত করার চেষ্টা করছে। নুর মামলার প্রধান আসামি নন, তাকে সহায়ক হিসেবে আসামি করা হয়েছে। মূলত অভিযোগ হাসান আল মামুন ও নাজমুল হাসান সোহাগের বিরুদ্ধে। তবে নুর মেয়েটিকে বাড়াবাড়ি না করতে হুমকি দিয়েছে এবং বিষয়টিকে ধামাচাপা দিয়ে রাখতে চেষ্টা করেছে।

অন্যদিকে রংপুর প্রেস ক্লাবের সামনে নুরের বিরুদ্ধে হওয়া মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে ছাত্র অধিকার পরিষদ।

ওই মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, সরকার বারবার ভিপি নুরের ওপর হামলা করে তার কণ্ঠরোধের চেষ্টা করেছে। নুরের কণ্ঠ রোধ হওয়া মানে বাংলাদেশের ছাত্রসমাজকে থামিয়ে দেওয়া। মানববন্ধনে বক্তারা অবিলম্বে নুরের ওপর হামলাকারীদের গ্রেফতার এবং মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান।

সম্পাদক ও প্রকাশক : আহসান হাবীব
উপদেষ্টা সম্পাদক : মোশতাক আহমেদ রুহী

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : বসতি হরাইজন, ১৭-বি, বাড়ি-২১, সড়ক-১৭, বনানী, ঢাকা
ফোন : বার্তা-৯৮২২০৩২, ৯৮২২০৩৭, মফস্বল-৯৮২২০৩৬
বিজ্ঞাপন-৯৮২২০২১, ০১৭৮৭ ৬৯৭ ৮২৩,
সার্কুলেশন-৯৮২২০২৯, ০১৮৫৩ ৩২৮ ৫১০
Email: kholakagojnews7@gmail.com
            kholakagojadvt@gmail.com