প্রেম করছেন কর্ণ-হিয়া!

বিনোদন ডেস্ক / ৬:২৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৩,২০২০

প্রেম হওয়া উচিত ছিল ‘উজান’ আর ‘হিয়া’র মধ্যে। কিন্তু হল পুরো উল্টোটা! কানাঘুষোয় তোলপাড় টেলিপাড়া, ‘হিয়া’ ওরফে অনামিকা চক্রবর্তী নাকি জমিয়ে প্রেম করছেন ‘কী করে বলব তোমায়’-এর নায়ক ‘কর্ণ সেন’ ক্রুশল আহুজার সঙ্গে। ফেসবুক ঘাঁটলেই যুগলের ছবি মিলবে হাতেগরম। গত মাসে ক্রুশলের জন্মদিনে মাঝ রাতে অভিনেতার বাড়ির পার্টিতেও ছিলেন তিনি।

এ বিষয়ে অভিনেত্রী বলেন, ‘‘ক্রুশলকে আমি অনেক দিন ধরেই চিনি। আমরা ভাল বন্ধু। পুরোটাই গুজব। এর আগেও ক্রুশলের সঙ্গে বিভিন্ন পার্টিতে ছিলাম। এটা নতুন নয়।’’

কীভাবে বন্ধুত্ব হল? এর আগে ক্রুশলের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করেছেন? অভিনেত্রীর পাল্টা প্রশ্ন, এক সঙ্গে কাজ না করলে বন্ধু হতে নেই? যে ভাবে একে অন্যের সঙ্গে বন্ধুত্ব পাতায় সবাই, সে ভাবেই তৈরি হয়েছে তাদের ফ্রেন্ডশিপও। এক স্কুল, কলেজ বা পাড়াতুতো চেনাশোনা দুই অভিনেতার? ‘‘আমাদের দু’জনের কমন ফ্রেন্ড আছে। সেই সূত্রেই পরিচয়’’, দাবি অনামিকার।

তার মতে, আজকের দিনে ‘ভাল বন্ধু’র খুবই অভাব। ফলে, আগামী দিনেও ক্রুশলকে তিনি বন্ধু রূপেই পেতে চান।

‘বিশেষ সম্পর্ক’-কে ‘বন্ধুত্ব’-এর মোড়কে যতই ঢাকুন অনামিকা, হাটে হাঁড়ি ভেঙেছেন তার রিল লাইফ হিরো ‘উজান’ শন বন্দ্যোপাধ্যায়। নাম না করে তিনি জানিয়েছেন, অনামিকা প্রেম করছেন টেলিপাড়ারই এক নায়কের সঙ্গে। বিষয়টি জলের মতোই পরিষ্কার, অন্যের প্রেমিকা বলেই তিনি দূরে অনামিকার থেকে। ইতিহাস বলছে, তিনিও কিন্তু অনামিকার ‘পূর্ব পরিচিত’!

অনামিকার থেকে শন দূরে থাকলেও স্বস্তিকা দত্ত ওরফে ‘রাধিকা’ কিন্তু দূরে থাকতে রাজি নন ক্রুশলের থেকে। আগে এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, তিনি এবং ক্রুশল দু’জনেই হ্যান্ডসাম। প্রেম হওয়াই স্বাভাবিক। এক সাক্ষাৎকারেও সিঁদুর পরানোর দৃশ্য নিয়ে তার মন্তব্য ছিল, ‘‘মানতেই হবে, ভরিয়ে সিঁদুর পরিয়েছে কর্ণ সেন! বেশ জোশ ছিল ক্রুশলের মধ্যে।’’

তার পরেই বার্থ ডে উইশে সোশ্যাল মিডিয়ায় সরাসরি মন্তব্য, ‘‘মেনি মেনি হ্যাপি রিটার্নস ‘কে’! অলওয়েজ উইথ লাভ!’’সঙ্গে হাতের মুদ্রায় ভালবাসার ইমোজি।

শুধুই সহ-অভিনেতার প্রতি সৌজন্য! আর কিচ্ছু ছিল না সেদিনের শুভেচ্ছায়?

উত্তর দিলেন টেলি ইন্ডাস্ট্রির এক প্রযোজক, ‘‘আমরা চাই নায়ক-নায়িকারা প্রেম করুন। উঠতি বয়েস। সারাক্ষণ সেটের ঘেরাটোপে বন্দি। কতক্ষণ ভাল লাগে? মন উড়ু উড়ু করবে না! বাইরে প্রেম থাকলে ঝটপট কাজ সেরে স্টুডিয়ো থেকে বেরোনোর ফাঁক খুঁজবেন। তার থেকে এই-ই ভাল। ধারাবাহিকেও এর ভাল ছাপ পড়ে।’’

নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক প্রযোজকের আরও দাবি, রসায়ন গাঢ় করতে প্রয়োজনে আলাদা মেকআপ রুম ছেড়ে দেওয়া হয়। শুধু শুটিংয়ের সময় ছাড়া বাকিটা যাতে যুগলে একান্তে সময় কাটাতে পারেন।

দুটো ভিন্ন ধারাবাহিকের নায়ক-নায়িকা প্রেমে পড়লেও কি একই সুফল মেলে? প্রযোজকের যুক্তি, ‘‘স্টেডি প্রেমিক-প্রেমিকা থাকলেও শুটিংয়ের দৌলতে ‘ঘরওয়ালি বাহারওয়ালি কিস্যা’ জলভাত অভিনয় দুনিয়ায়। ফলে কখন, কার দিকে, কে আকৃষ্ট হবেন ঈশ্বরও বোধহয় জানেন না। আমরা তো মানুষ!’’ খবর: আনন্দবাজার।

সম্পাদক ও প্রকাশক : আহসান হাবীব
উপদেষ্টা সম্পাদক : মোশতাক আহমেদ রুহী

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : বসতি হরাইজন, ১৭-বি, বাড়ি-২১, সড়ক-১৭, বনানী, ঢাকা
ফোন : বার্তা-৯৮২২০৩২, ৯৮২২০৩৭, মফস্বল-৯৮২২০৩৬
বিজ্ঞাপন-৯৮২২০২১, ০১৭৮৭ ৬৯৭ ৮২৩,
সার্কুলেশন-৯৮২২০২৯, ০১৮৫৩ ৩২৮ ৫১০
Email: kholakagojnews7@gmail.com
            kholakagojadvt@gmail.com